টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

২৪ এ বিজেপিকে হারাতে সমস্ত বিরোধী দলকে একজোট হওয়ার ডাক দিলেন মমতা ব্যানার্জী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ১৯৯৩ সালের এই দিনে মহাকরণ অভিযানে অংশ নিতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছিল প্রায় ১৩ জন কংগ্রেস কর্মীর। তৎকালীন কংগ্রেস যুব নেত্রী মমতা ব্যানার্জীর রাজনৈতিক কেরিয়ারে অনেকেই এই ঘটনাকে একটা টার্নিং পয়েন্ট বলে মনে করেন। এরপর থেকে এই ঘটনাকে শহীদ দিবস হিসেবে পালন করে আসছে তৃণমূল কংগ্রেসও। যদিও অন্যান্যবারের তুলনায় এবারের শহীদ দিবস অনেকটাই আলাদা। একদিকে যেমন করোনার আবহে ভার্চুয়ালি শহীদ দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। তেমনি অন্যদিকে লোকসভাকে পাখির চোখ করে এই শহীদ দিবসকে সারা দেশজুড়ে ছড়িয়ে দিতে তৎপর তৃণমূল।

গুজরাট, ত্রিপুরা, বিহার, ঝাড়খন্ড তো বটেই এমনকি রাজধানী দিল্লিতে মমতার ভাষণ শোনার ব্যবস্থা করা হয়েছে তৃণমূলের তরফে। কলকাতারও একাধিক জায়গায় লাগানো হয়েছে জায়েন্ট স্ক্রিন। ধর্ম তলায় ব্যবস্থা করা হয়েছে শহীদ তর্পনেরও। ইতিমধ্যেই সেখানে উপস্থিত হয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন অরূপ রায়, ফিরহাদ হাকিম, সুজিত বসু, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সি একাধিক তৃণমূল নেতৃত্ব। দিল্লিতে এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে উপস্থিত হন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার, কংগ্রেসের মন্ত্রী দিগ্বিজয় সিং, আম আদমি পার্টির মন্ত্রী সঞ্জয় সিং সহ আরও অনেকেই। এরপর কালীঘাটে দুপুর দুটো নাগাদ ভাষণ শুরু করেন মমতা।

আজকের এই মঞ্চ থেকে কার্যত বিরোধীদের উদ্দেশ্যে একহাত নিলেন তিনি। লোকসভা ২৪ যে এখন তৃণমূলের পাখির চোখ তাই দিন ফের একবার স্পষ্ট করে দেন তিনি। মমতা বলেন, “সকলকে বলব একজোটে প্রতিবাদে নামুন। জানতে চান, পেট্রোল, ডিজেল, গ্যাসের দাম বাড়ল কেন? টিকা নেই কেন? পেগাসাস পেগাসাস নরেন্দ্র মোদীর নাভিশ্বাস। পেগাসাস হটাও দেশ বাঁচাও।” তিনি বলেন “বাংলা দেখিয়েছে। সব রাজ্যকে বলছি, যান নিজেদের নেতাদের বোঝান। সবাই মিলে ফ্রন্ট বানান। রোগী মৃত্যুর পর ডাক্তার এলে কোনও লাভ হয় না। এখন আর সময় নেই। আমি দিল্লি যাচ্ছি। ২৬, ২৭, ২৮ এর মধ্যে কোনও মিটিং ডাকতে পারলে ডাকুন। সবাইকে মিলিয়ে আমরা ইউনাইটেড ইন্ডিয়া করতে চাই।”

কার্যত আজ সকলকেই বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হয়ে লড়ার ডাক দেন মমতা। অনেকেই মনে করছেন, বিজেপি বিরোধী যে ফ্রন্ট গড়ার স্বপ্ন দেখছেন অনেকেই আজ তারই এক রকম সূত্রপাত করলেন তিনি। তিনি বলেন, বিজেপি জানেনা মানবাধিকার কাকে বলে। কল ট্যাপ করলে স্পাইগিরি করলে কিছু হয় না। তিনি আরও বলেন, “মনে রাখবেন, আমরা হারব না, আমরা ভয় পাব না, মাথা নত করব না। আমরা, করব, লড়ব, জিতব। এখনও অনেক কাজ বাকি রয়েছে।” একুশে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে যে ২০২৪ এ লোকসভা জয়ের বার্তা দিলেন মমতা, এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।

 

Related Articles

Back to top button