টাইমলাইনভারত

১৬ লক্ষ টাকা ঘুষ দিয়ে সেনায় চাকরি, চারমাস পর জানতে পারলেন তিনি বাহিনীর সঙ্গে যুক্তই নন

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সেনাবাহিনীতে চাকরি দেওয়ার নাম করে লোক ঠকানোর অভিযোগ মাঝে মধ্যেই শোনা যায়। এবার সেই নকল নিয়োগের ঘটনায় সামনে এলো উত্তরপ্রদেশের নাম। এদিকে এক যুবক প্রায় চার মাস সেনাবাহিনীতে কাজ করেছেন, তারপর তিনি জানতে পারলেন যে তিনি মোটেও সেনাবাহিনীতে যোগদান করতে পারেননি।

এই ঘটনায় মনোজ কুমার নামে ওই যুবক থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। এই ভুয়ো নিয়োগ মামলায় রাহুল সিং নামে এক প্রাক্তন সেনাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গাজিয়াবাদের এই যুবক মনোজ অভিযোগ করেছেন যে জুলাইয়ের শুরুতে তিনি রাহুলকে ১৬ লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন এবং তাঁর মধ্যস্থতায় তিনি সেনাবাহিনীতে নিয়োগের চিঠি পেয়েছিলেন।

এরপর, তিনি টেরিটোরিয়াল আর্মির ১০৮তম পদাতিক স্থলবাহিনীর সেনায় প্রশিক্ষণার্থী হিসাবে পাঠানকোট সেনানিবাসে চার মাস কাজ করেন। এমনকী তিনি মাসে ১২,৫০০ টাকা বেতনও পান। তাছাড়াও তিনি সেনাবাহিনীর ইউনিফর্ম ও পরিচয়পত্র পেয়েছিলেন। একদিন এই পাঠানকোটে টেরিটোরিয়াল আর্মির ২৭২ নম্বর ট্রানজিট বা পরিবহন ক্যাম্পে কাজ করতে করতে মনোজ হঠাৎ জানতে পারলেন যে তিনি আসলে সেনাবাহিনীতে কাজই করেন না। তিনি আসলে এতদিন সেনা ক্যাম্পে অস্থায়ী কর্মী হিসেবে কাজ করে আসছেন।

এরপর তিনি ঘটনাটি বুঝতে পেরে পুলিশের সাহায্য নেন। ঘটনার তদন্ত করে সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা বিভাগের সহায়তায় রাহুলকে গ্রেফতার করা হয়। আবার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বিট্টু সিং নামে আরও এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে, জাল নিয়োগ রিংয়ের মাথা রাজা সিং এখনও খোঁজ পাওয়া যায়নি, পুলিশ জানিয়েছে।

Related Articles