যোগিরাজ্যে ঘর ওয়াপসি! সাবানা হলেন রজনী, ইসলাম ছেড়ে সনাতনী হতে হিন্দু যুবককে বিয়ে

বাংলা হান্ট ডেস্ক : গোটা দেশ জুড়ে ধর্মান্তরের (Conversion) হিড়িক পড়ে গেছে। অনেকেই বলছেন এ হল হিন্দু ধর্মের নবজাগরণ। বস্তুত কখনও মুসলিম ধর্ম থেকে, কখনও বা খ্রিস্টান ধর্ম থেকে দলে দলে মানুষ যোগ দিচ্ছেন হিন্দু ধর্মে। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এই সমস্ত মানুষের দাবি তাঁদের পূর্বপুরুষরা হিন্দুই ছিলেন। কিন্তু তাঁদের লোভ দেখিয়ে কখনও বা ভয় দেখিয়ে ধর্মান্তকরণে বাধ্য করা হয়। তাই তাঁরা আবারও নিজেদের ধর্মেই ঘর ওয়াপসি (Ghar Wapsi) করলেন।

   

একই রকম ভাবে ফের এক ঘর ওয়াপসির ঘটনা ঘটল যোগি রাজ্যের (Uttar Pradesh) কৌশাম্বীতে। মুসলিম তরুণী সাবানা পরিত্যাগ করলেন নিজের ধর্ম। হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করে নাম নিলেন রজনী। বিয়ে করলেন হিন্দু যুবক বাবলুকে।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের কৌশাম্বী জেলার করারী থানার অলাওপুর গ্রামের। মুসলিম তরুণী সাবানা মহোবার বাসিন্দা ছিলেন। সনাতন যুবক বাবলু কৌশাম্বীর বাসিন্দা। আজ থেকে বছর চারেক আগে দুজনেই একটি ইঁট ভাটায় জাজ করতেন। সেখান থেকেই দুজনের আলাপ। তারপর বন্ধুত এবং প্রেম।

ghar wapsi up

মাস ছয়েক আগে দু’জনের বাড়িতে ঘটনা র কথা জানাজানি হয়ে যায়। এই সম্পর্কে প্রবল আপত্তি জানায় দু’জনের পরিবারই। কিন্তু সাবানা বাবলুকে বিয়ে করার জন্য শপথ নিয়ে বসেন। অপর দিকে জেদ বাবলুও। কিন্তু পরিবার থেকে দুজনের দেখা হওয়াও বন্ধ হয়ে যায়। এরই মধ্যে, বাবলু সোজা পৌঁছে যায় সাবানার বাড়িতে। তাঁকে সেখান থেকে নিজের বাড়িতে।

এরপর, সাবানার বাড়ির লোক চলপ আসে বাবলুর বাড়ি। সাবানাকে ফিরিয়ে নিয়ে যেতে জোর কর। কিন্তু বাবলুকে বিয়ে করার জন্য নাছোড়বান্দা সাবানা।এরপরই পর ধর্ম পরিবর্তন করে হিন্দু হয়ে নাম পরিবর্তন করে হয়ে ওঠেন রজনী। বিয়ে করেন নিজর প্রেমিককে