বদলে গেল নিয়ম, এবার এক পরিবারের এতজনই পাবেন লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে টাকা! ঘোষণা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ২০১১ সালে বাম রাজ্যত্বের অবসান ঘটিয়ে বাংলায় ক্ষমতায় আসেন মমতা বন্দপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। ইনি বাংলায় ক্ষমতার আসার পর থেকেই একের পর এক নতুন নতুন প্রকল্প এনে চমকে দিয়েছেন সবাইকে। আর এবার আরও এক বড় খবর দিল রাজ্য সরকার ( Government Of West Bengal)।

   

তিনি জনসাধারণের কল্যাণের জন্য যুবশ্রী, পথশ্রী, কন্যাশ্রী মতো একের পর এক প্রকল্প এনেছেন। শুধু এটুকুই না মহিলাদের হাত খরচের জন্য তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। ২০২১ সালে নতুন করে ক্ষমতায় আসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) নামে একটি প্রকল্প চালু করেন।

এই প্রকল্প বিশেষ করে, মহিলাদের মধ্যে বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এই প্রকল্প চালু হওয়ায় রাজ্যের মহিলাদের মুখে হাসি ফুটেছে। মুখ্যমন্ত্রী এবার এই লক্ষ্মীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar) প্রকল্প নিয়ে আবারও এক বিশেষ ঘোষণা করলেন। বহু মহিলারা মুখ্যমন্ত্রীকে একই প্রশ্ন বারবার করেছেন যে, এই লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের সুবিধা একই পরিবারের কয়েকজন মহিলা নিতে পারবেন? এবার এই প্রশ্নর উত্তর দিতে গিয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন : ফের যুদ্ধ! জঙ্গি হামলায় ২৫ জনের মৃত্যুর পর রেগে লাল পাকিস্তান, তালিবানকে দিয়ে দিল বড়সড় হুমকি

তিনি বললেন, ‘একই পরিবারে যদি ৭ জন মহিলা থাকেন তারা যদি এই প্রকল্পের শর্ত পূরণ করতে পারেন তাহলে নিশ্চই তারা প্রকল্পের টাকা পাবেন’। যদি কখনও প্রকল্পের টাকা পেতে অসুবিধা হয় তাহলে ৯১৩৭০৯১৩৭০ নম্বরে ফোন করার কোথাও জানান।

আরও পড়ুন : Aadhaar নিয়ে বড় স্বস্তি দিল UIDAI, বিনামূল্যে আধার আপডেটের মেয়াদ বৃদ্ধি! এল নতুন তারিখ

পরিবারের মহিলারা প্রতি মাসে সরকারের কাছ থেকে এই প্রকল্প দ্বারা টাকা পান। তবে এই লক্ষ্মীর ভান্ডারে জেনারেল ক্যাটাগরির জন্য ৫০০ টাকা করে পান এবং তফসিলি জাতি ও উপজাতি শ্রেণীকে প্রতি মাসে ১০০০ টাকা করে দেওয়া হয়