বড়দিনের আগেই বড় উদ্যোগ দিঘায়, বদলে যাচ্ছে সৈকত শহর! এবার দ্বিগুণ মজা হবে পর্যটকদের

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : বাঙালির কাছে একটা আলাদাই ইমোশনের জায়গা হল দীঘা (Digha)। দীঘা ঘুরতে যাওয়ার কথা শুনলেই মাথায় ভেসে ওঠে সমুদ্রের ছবি। সেটা শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা হোক কিংবা বছরের যেকোনো সময় ভ্রমণপিপাসু বাঙালিরা দীঘায় পাড়ি জমান। মানুষ এত কাজের পরও যখন হাতে দুটো দিনের ছুটি পায়, তখন কম বাজেটে দীঘা ঘুরতে যাওয়াটা সব থেকে শ্রেয় বলে মনে হয়। তারপরই ব্যাগপত্র গুছিয়ে বেরিয়ে পড়ে দীঘার উদ্দেশ্যে। এই ঠাণ্ডায় কোথাও ঘুরতে যাওয়ার আনন্দ যেন আরও বেশি দ্বিগুণ হয়ে ওঠে। কারণ শীতের এই মিঠে রোদে সমুদ্রের তীরে ঘুরতে মানুষের বেশ ভালোই লাগে।

আপনিও কি এই শীতে দীঘা ঘুরতে যেতে চান? তাহলে আপনার জন্য রইলি জরুরি খবর। সামনের ২৫শে ডিসেম্বরের আগেই দীঘা প্রশাসন থেকে একটি বড়সড় ঘোষণা করা হয়েছে। দীঘা শংকরপুর উন্নয়ন বোর্ড এবং জেলা প্রশাসন বিশেষ কিছু পদক্ষেপ এবং সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, হকারদের কারণে পর্যটকদের প্রায়শই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় বলে অভিযোগ ওঠে। এই কারণে পর্যটকেরা সমুদ্র তীরবর্তী জায়গাগুলিতে ভালো করে ঘুরতে পারেন না। তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বড়দিনের আগেই হকারদেরকে ওই জায়গাগুলি থেকে উচ্ছেদ করা হবে। বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যেসব হকার স্টলের জন্য আবেদন করেছিলেন তাদের বাদ দিয়ে বাকি হকারদের উচ্ছেদ করা হবে।

digha beach (1)

এরইমধ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা শুরু হয়ে গিয়েছে। দীঘা শংকরপুর ডেভেলপমেন্ট বোর্ড জানিয়েছে, তারা কোনও রকম মেশিন এনে কোনো কিছু করতে চায় না। তাই বড়দিনের আগেই হকারদের সরে যেতে বলে দেওয়া হবে।

সম্পর্কিত খবর