দাম কম হলেও স্বাদ অমিল! পশ্চিমবঙ্গে কবে ঢুকছে পদ্মার ইলিশ?

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বর্ষা আসতেই রূপোলি শস্য উঠে আসায় এখন খুশি বাঙালি খাদ্যরসিকরা। টন টন ইলিশ এবার ঢুকে পড়ল কলকাতা ও শহরতলির বাজারে। একেবারে পকেটের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে মিলছে রুপালি শস্য। কলকাতার বাজারে দেদার বিক্রি হচ্ছে ইলিশ মাছ। তবুও আমজনতার মনে একটা আক্ষেপ থেকেই যাচ্ছে, ইলিশ (Hilsa) মিললেও স্বাদে ফাঁক থেকে যাচ্ছে।

অন্যান্য বছর ইলিশের দাম মধ্যবিত্তের সাধ্যের অনেকটা বাইরে থাকলেও এবছর ছবিটা একটু আলাদা। এখন কাকদ্বীপ মৎস্যবন্দর থেকে ডায়মন্ডহারবারের বাজারে ইলিশ আসছে টন টন। ইলিশগুলি প্রতি কেজি ১,২০০–২,৫০০ টাকা। তবে দরদাম করলে আর একটু কমছে। তবে, এই প্রসঙ্গে একটা কথা জানিয়ে রাখা দরকার, সাইজ অনুযায়ী দামের পার্থক্য থাকছে।

বাজারে ইলিশের দাম ৬০০ গ্রাম পর্যন্ত ওজনের ইলিশের দাম ৪৫০-৫০০ টাকা প্রতি কেজি ৬০০-৭০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের দাম ৬০০ টাকা প্রতি কেজির আশেপাশে। ৮০০-৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের দাম ৭০০ টাকা প্রতি কেজি আর ১ কেজি থেকে দেড় কেজি ইলিশের দাম ৯০০ থেকে ১০০০ টাকা প্রতি কেজি। কিন্তু ইলিশের গুণগত মানের ওপর দাম অনেকটাই নির্ভর করছে বিভিন্ন বাজারে।

কলকাতার বাজারে ইলিশের দাম কিছুটা সাধ্যের মধ্যে আসলেও এখনও পর্যন্ত স্বাদ নিয়ে অখুশিই থাকতে হচ্ছে বাঙালি ইলিশ প্রেমীদের। বর্তমান বাজারের প্রায় ৯০% এর বেশি ইলিশ সমুদ্র থেকে ধরা, যার গুণগত মান তুলনামূলক অনেকটাই কম।তাই, দাম দিয়ে ইলিশ কিনে নিয়ে গেলেও রান্না করার পর পাওয়া যাচ্ছে না চেনা স্বাদ।

ilish mach

সবমিলিয়ে, ক্রেতারা অবশ্য বহু ক্ষেত্রেই মনের মত স্বাদ পাচ্ছেন না। ছোট থেকে বড় সব ইলিশের ক্ষেত্রেই চেনা গন্ধ ‘মিসিং’। আসলে, ইলিশের স্বাদ প্রধানত নির্ভর করে ইলিশটিকে কোথা থেকে ধরা হচ্ছে তার ওপর। প্রজননের জন্য ইলিশ মিঠে জলে আসলে তখন তার স্বাদ সবথেকে ভাল হয়। সব মিলিয়ে, এখন পদ্মার ইলিশ কলকাতার বাজারে ঢোকার অপেক্ষায় দিন কাটছে তিলোত্তমাবাসীর।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর