বাজাজকে কড়া টক্কর! দুর্ধর্ষ ফিচার্স নিয়ে পুজোর আগেই নতুন বাইক লঞ্চ করল হন্ডা, দামও সাধ্যের মধ্যে

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : দু চাকার বাজার দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে দেশীয় সংস্থা হন্ডা। আর তাই তো একটার পর একটা দূর্দান্ত ফিচারের গাড়ি লঞ্চ করে চলেছে সংস্থাটি। এই যেমন সদ্যই 160 সিসি ইঞ্জিন ক্ষমতা সম্পন্ন দারুণ মোটরসাইকেল লঞ্চ করেছে হন্ডা। সমস্ত গুজব ও জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বাজারে হাজির হয়েছে Honda SP160। ডিস্ক ও টুইন ডিস্ক-এই দুটি ভেরিয়েন্টেই এসেছে বাইক।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই দুটি 160 সিসির মোটরবাইক লঞ্চ করে ফেলেছে সংস্থাটি। এই নিয়ে তৃতীয় 160 সিসির মোটরবাইক লঞ্চ করল হন্ডা। যদিও ভার্সনটি একেবারে নতুন, তবে এর সাথে Honda SP125-র অনেকটাই মিল পাওয়া যায়। তবে তারমধ্যেও একটা স্পোর্টি লুক আছে বাইকটির মধ্যে। অনেকে তো বলছে হন্ডার Unicorn-র চেয়েও আকর্ষণীয় মাসকুলার লুক দেওয়া হয়েছে এই বাইকটিকে।

এমনিতেও ভারতীয় বাজারে 160 সিসি বাইকের বিক্রি বেশ ভালই। মধ্যবিত্ত এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর বাইক লাভাররা যে এই রেঞ্জের বাইক ভীষণভাবে পছন্দ করে তার খবর আগেই পেয়ে গেছিল বাজাজ। যে কারণে ভারতীয় রাস্তায় বার হলেই 160 সিসি বাইকের মেলা দেখতে পাওয়া যায়। পালসার তো আছেই, এখন তার সাথে জুড়েছে TVS Apache, Hero Xtreme-র নামও।

প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে এতগুলো প্রতিদ্বন্দ্বিকে তো হারাতেই হবে। আর তাইতো গ্রাহকদের কাছে বিকল্প বাড়াতে ভারতে হাজির হল এই মোটরসাইকেল। হন্ডার এই নতুন গাড়িতে রয়েছে 162 সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার এয়ার-কুলড ইঞ্জিন যা সর্বোচ্চ 13.4 পিএস শক্তি এবং 14.58 নিউটন মিটার টর্ক তৈরি করতে সক্ষম। পাশাপাশি Honda SP160-তে দেওয়া হয়েছে 5 স্পিড গিয়ার।

হন্ডার এই নতুন বাইকের সামনের দিকে রয়েছে টেলিস্কপিক ফর্ক এবং পিছনে রয়েছে মনোশক। সামনে এবং পিছনের দুই চাকাতেই থাকবে ডিস্ক ব্রেক সঙ্গে সিঙ্গেল চ্যানেল অ্যান্টি লক ব্রেকিং সিস্টেম। যদিও সিঙ্গেল ভার্সনটিতে এই ডিস্ক ব্রেক দেওয়া হয়নি। উল্লেখ্য, বাইকটির গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স রয়েছে 177 মিলিমিটার এবং এতে দেওয়া হয়েছে 594 মিলিমিটার উঁচু সিট।

2023 honda sp 160

বাইকটিতে পাবেন LED হেডল্যাম্প ও অ্যালয় হুইল। সাথে রয়েছে ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার যেখানে বাইকের জ্বালানি, দূরত্ব, ব্যাটারি লেভেল, গতি ইত্যাদি তথ্য মনিটর। হেডলাইট ও টেললাইট উভয় জায়গাতেই দেওয়া হয়েছে LED। দামের কথা বললে, সিঙ্গেল ডিস্ক-বাইকটি কিনতে আপনাকে খরচ করতে হবে প্রায় 1,17,500 টাকা এবং টুইন ডিস্ক-এর দাম 1,21,900 টাকা (এক্স-শোরুম)।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর