টাইমলাইন

আবহাওয়া: নাসার স্যাটেলাইটে ভয়ংকর ছবি; নতুন সংকট ঘনীভূত ভারতে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনাতে প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড পরিমান আক্রান্ত হচ্ছে দেশে। করোনা মৃত্যুতে ভারত ছাপিয়ে গেছে চীনকেও। লকডাউনের কারনে বিপর্যস্ত অর্থনীতি। ৮ কোটি পরিযায়ী শ্রমিকের একটা বড় অংশ ক্ষুধা নিবৃত্ত করবার সুযোগ পাচ্ছে না, তাদের মাথার ওপর নেই ছাদ, মায়ের তলায় মাটি। অন্যদিকে আমফানে বিধ্বস্ত বাংলার দুটি জেলা। সর্বোচ্চ ক্ষতি হয়েছে সেখানে। আসামেও বন্য পরিস্থিতি মর্মান্তিক। দেশের বিরাট অংশ জুড়ে পঙ্গপাল হানা ক্ষতি করছে ফসলের। এরই মধ্যে আরো এক নতুন সংকট ঘনীভূত হল দেশে।

 

নাসার স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া ছবি জানান দিচ্ছে, পশ্চিম ভারতের তাপমাত্রা বেড়ে চলেছে লাগামহীন ভাবে। মঙ্গলবার রাজস্থানে চুরুতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দিল্লিতে উষ্ণতা ৪৭ ডিগ্রির বেশী। গত ৫ দিন ধরে উত্তর ও মধ্য ভারতের বেশিরভাগ জায়গাতেই তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রির উপরে রয়েছে। পূর্বাভাস আরো এক সপ্তাহ এই গরম থাকবে।

পূর্বাভাস, দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডিগড় সহ একধিক জায়গার পারদ চড়বে হুহু করে। ৬.৫ ডিগ্রিরও বেশী বাড়বে পারদ। গঙ্গানগর, আগরা, ঝাঁসি, খাজুরাহো, নাগপুর, অকোলা, গোয়ালিয়ার, পালাম, দিল্লিতে পারদ চড়বে অনেকটাই। এছাড়াও বিলাসপুর, রায়পুর, মেডাক, হায়দরাবাদ, চন্ডিগড়ে থাকবে প্রবল তাপমাত্রা।

আবহাওয়া অধিদফতর পূর্বাভাস দিয়েছিল, যে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এই বছর গ্রীষ্মের তাপপ্রবাহের প্রকোপ আগের বছরের তুলনায় বেশি হবে। বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন এপ্রিল থেকে জুনের মধ্যে গড় তাপমাত্রা 0.5 থেকে 1.0 ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে।

২০২০ সালে মার্চ থেকে মে অবধি এই তিন মাসের তাপমাত্রা গড় স্বাভাবিক তাপমাত্রা থেকে ০.৫ থেকে ১ ডিগ্রী বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলোতে। এর পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিম দিকের বেশ কয়েকটি জেলায়ও গরম বাড়তে পারে। পুরুলিয়া (Purulia), বাঁকুড়া (Bankura), বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমানের জেলাগুলিতে গরম পড়বে। আবার বেশকিছু জায়গায় যেমন হিমাচল প্রদেশ (Himachal Pradesh), উত্তরাখণ্ড, পশ্চিম রাজস্থান ও অরুণাচল প্রদেশে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের ১ ডিগ্রির থেকেও বেশি বাড়বে।

আঞ্চলিক পূর্বাভাস ইউনিটের প্রধান ডক্টর কুলদীপ শ্রীবাস্তব জানান, এই বছর তাপের প্রভাব তুলনামূলকভাবে সমভূমি এবং পার্বত্য অঞ্চলে তুলনামূলকভাবে বেশি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। উত্তরাখণ্ড এবং হিমাচল প্রদেশের পার্বত্য অঞ্চল ছাড়াও পশ্চিম রাজস্থানে তিন মাসের মধ্যে গড় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে এক ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি যেতে পারে।

Related Articles