টাইমলাইনটেক নিউজভারত

এবার বাজারে আসছে হুন্ডাইয়ের নতুন ইলেক্ট্রিক গাড়ি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ  অটোমোবাইলের বড় বড় হুন্ডাই আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে ভারতীয় বাজারে বড় আকারে বৈদ্যুতিক গাড়ি চালুর পরিকল্পনা করছে। হুন্ডাই মোটর ইন্ডিয়া লিমিটেডের (এইচএমআইএল) পরিচালক (বিক্রয় ও বিপণন) তরুণ গর্গের মতে, সংস্থাটি বর্তমানে বিস্তৃত স্কেলে বৈদ্যুতিক গাড়ির বাজারে প্রবেশের একটি নতুন পরিকল্পনায় কাজ করছে এবং আগামী দুই থেকে তিন বছরে এই পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত হবে ।

সংস্থাটি সম্প্রতি একটি কোনা বৈদ্যুতিক গাড়ি চালু করেছে, যার দাম প্রায় 24 লক্ষ টাকা।২০২০ সালের অটো এক্সপোতে আ গর্গ বলেছিলেন যে চ্যালেঞ্জপূর্ণ সময় সত্ত্বেও সংস্থাটি ভারতে তার বাজারের অংশীদারিত্ব বাড়িয়ে তুলতে সক্ষম একই সাথে অটোমোবাইল খাতে মন্দা প্রভাবের প্রসঙ্গে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, “আমরা প্রত্যাশা করছি যে ২০২০ সালের দ্বিতীয়ার্ধে বাজারটি উত্থিত হবে, যখন বিক্রয় প্রথম প্রান্তিকে স্থিতিশীল হতে পারে।”

 

ভার্চুয়ালি ভারতের বৃহত্তম ইলেকট্রিক দ্বি-চাকার ব্র্যান্ড হিরো ইলেকট্রিক তার নতুন পরিসরের পণ্য একটি নতুন বৈদ্যুতিক মোটরসাইকেল অটো এক্সপো ২০২০ তে প্রদর্শন করেছিল । এ ই-47, জন্মগত বৈদ্যুতিক যান প্রস্তুতকারকের কাছ থেকে প্রিমিয়াম পণ্য হিসাবে প্রদর্শিত হয়েছে।  হিরো ইলেকট্রিক উত্স উপাদানগুলি এবং বিদেশী অংশীদারদের কাছ থেকে নকশাকে বেছে নিয়েছে, । আপাতত, এ ই-47 সবেমাত্র প্রদর্শিত হয়েছে, এবং শিগগিরই ভারতে চালু করা হবে এবং এর দাম 1.25 – 1.5 লাখ   টাকার মধ্যে।

ভবিষ্যত পৃথিবীতে জীবাশ্ম জ্বালানির দুষ্প্রাপ্যতা ও দূষনের কথা মাথায় রেখে পরিবেশবিদরা বহুদিন ধরেই বিকল্প জ্বালানির কথা বলেছিলেন। এতে যেমন পেট্রল, ডিজেল ইত্যাদি জীবাশ্ম জ্বালানির সাষ্রয় সম্ভব তেমনই সাম্প্রতিক কালে ভয়াবহ আকার ধারন করা পরিবেশ দূষন নিয়ন্ত্রন করাও সম্ভব। আর এই দুইয়ের কথা মাথায় রেখেই তৈরি হয়েছে ইলেক্ট্রিক গাড়ি।প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গত কয়েক বছর ধরেই জোর দিয়েছেন এই বৈদ্যুতিক গাড়ির ওপর।

 

Back to top button