টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

আমি এক দিনের জন্য ধর্ষক হতে চাই, সমালোচনার মুখে পরে ক্ষমা চাইলেন বাম বুদ্ধিজীবী

বাংলা হান্ট ডেস্ক : এদিকে তেলেঙ্গানা গণধর্ষণ খুন ও কাণ্ডে এনকাউন্টার অন্যদিকে উন্নাওয়ের গণধর্ষণ কাণ্ডে নির্যাতিতাকে পুড়িয়ে খুন, আবার মালদহে তরুণীর দগ্ধ দেহ উদ্ধার কেন্দ্র করে কার্যত গোটা দেশ জুড়ে মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে হই হই রব উঠেছে। মহিলাদের যৌন হেনস্থার মতো ঘটনা নিয়ে যখন দেশের বিভিন্ন স্তর থেকে বারবার সমালোচনার ঝড় উঠছে ঠিক তখনই অন্য পথে হাঁটলেন কবি মন্দাক্রান্তা সেন। শনিবার রাতেই তেলেঙ্গানা গণধর্ষণ ও খুন কাণ্ডে এনকাউন্টার খাওয়ার পরে একটি ফেসবুক পোস্টে কবি এবং মানবাধিকার কর্মী মন্দাক্রান্তা সেন লেখেন,

‘আমি একদিনের জন্য পুরুষ হয়ে চাই। আপনার কন্যাকে ধর্ষনের বীভত্‍স মজা লুটে নিতে চাই। নিয়ে মরে দিতে চাই। আমার মৃত্যুদণ্ড হলে জানি আপনিই আমার হয়ে লড়বেন। আমাকে শুধু একটুখানি সংশোধন করে দেবেন স্যার। আমিও বলব, স্যার আর করব না। ব্যাস, মিটে যাবে।’

তার পর মন্দাক্রান্তা সেই ফেসবুক পোস্ট ঘিরে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সকলেই এই পোস্টের স্ক্রিনশট তুলে নিয়ে সমালোচনা করেন কিন্তু তার পর বিপাক বুঝতে পেরে নিজের ফেসবুক পোস্টটি ডিলিট করে দেন কবি মন্দাক্রান্তা সেন কিন্তু তাতেও নিষ্পত্তি হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন বিতর্কের পর বিতর্কের জন্ম হয়। তবে সমালোচনার চাপে পড়ে কার্যত ক্ষমা চেয়ে নিতে বাধ্য হন তিনি। ফেসবুক পোস্টে ক্ষমা চেয়ে তিনি লেখেন,

‘আমি বলতে চেয়েছিলাম, আমি ধর্ষক হলেও এদেশে আমার কোনও শাস্তি হবে না। কেউ কেউ আমার মৃত্যুদণ্ডের বিরোধিত…করে আমাকে বাঁচিয়ে রাখবেন। ‘আমাকে সংশোধন’  করা হবে।’ কবির আক্ষেপ, ‘কেউ যদি আমার গভীর যন্ত্রণার নিহিত নিহিত অর্থ ও তাৎপর্য বুঝতে না বুঝে ক্রুদ্ধ হন, তাহলে আর কী যাবে!’  …

Back to top button