ইন্ডিয়া বনাম ভারত বিতর্কের মাঝেই অক্ষয় কুমারের বড় সিদ্ধান্ত, বদলে ফেললেন ছবির নাম

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ‘ইন্ডিয়া বনাম ভারত’ (India Vs Bharat) বিতর্ক এখন তুঙ্গে। দেশের নেতা মন্ত্রী থেকে শুরু করে খেলোয়াড়, অভিনেতা প্রত্যেকেই এই বিতর্কে শামিল হয়ে পড়েছেন। কেউ পক্ষে মতামত দিচ্ছে তো কেউ আবার বিপক্ষে। আর এবার এই তালিকায় নাম লেখালেন খিলাড়ি কুমার অক্ষয়। মুখে কিছু না বলে সোজা কাজেই করে দেখালেন তিনি।

ইতিমধ্যেই অমিতাভ বচ্চনের এক টুইট ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। গতকাল রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণ পত্রের পর দুপুর একটা নাগাদ বিগ বি যে টুইট করেন তা নিয়ে শুরু হয় জল্পনা। সোজাসুজি না বললেও তিনি যে একপ্রকার কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকেই সমর্থন করছেন তাতে নিশ্চিত হয়ে যায় নেটিজনদের একাংশ।

   

আর এবার সেই পথে হাঁটলেন অক্ষয় কুমার। তার আসন্ন ছবি ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান রেসকিউ’-এর নাম বদলে ‘মিশন রানিগঞ্জ: দ্য গ্রেট ভারত রেসকিউ’ করে দিয়েছেন আক্কি। ইতিমধ্যেই ছবিটির মোশন পোস্টারও শেয়ার করেছেন অভিনেতা। টিজারে থেকে স্পষ্ট যে তিনি খ্যাতনামা ইঞ্জিনিয়ার যশবন্ত সিং গিল-এর ভূমিকায় অভিনয় করছেন।

আরও পড়ুন : উত্তর দিতে পারলেই ৭ কোটি! KBC-তে করা এই প্রশ্ন শুনেই হিমশিম খাচ্ছে জনতা, আপনি পারবেন?

জানিয়ে দিই, ছবিটি যশবন্ত এবং তার সাহসিকতার গল্পকে আবর্তিত নির্মিত। ১৯৮৯ সালে মাটি থেকে ৩৫০ ফুট নিচে আটকা পড়ে যায় ৬৫ জন শ্রমিক। যশবন্ত তার বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে সেই সমস্ত শ্রমিককে নিরাপদে বার করে আনেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই তৈরি করা হচ্ছে এই ছবি।

উল্লেখ্য, গত বছর যখন ছবির ঘোষণা করা হয় তখন এর নাম দেওয়া হয়েছিল ক্যাপসুল গিল। পরে নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান রেসকিউ’। আর এখন সেটা বদলে রাখা হয়েছে ‘মিশন রানিগঞ্জ: দ্য গ্রেট ভারত রেসকিউ’। সেই সঙ্গে ঘোষণা করা হয়েছে ছবিটির মুক্তির তারিখও। অক্ষয় কুমারের এই ছবিটি দীপাবলি উপলক্ষে ৬ অক্টোবর মুক্তি পাবে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Akshay Kumar (@akshaykumar)

 

উল্লেখ্য, দেশের নাম পরিবর্তন নিয়ে এবার মুখ খুলেছেন জ্যাকি শ্রফ-ও। এইদিন প্রথমে অমিতাভ বচ্চন টুইট করেন “ভারত মাতা কী জয়”। তারপরেই জ্যাকির বয়ান আসে। তিনি বলেন, এটা খারাপ কিছু নয়। জ্যাকি বলেন, ‘ভারত বলাটা খারাপ কিছু নয়। দেশের নাম বদলাবে, একটু বদলাবো।’ সবে মিলিয়ে একটা কথা স্পষ্ট যে, দেশের সিংহভাগ মানুষই চাইছে দেশের নাম ‘ভারত’ রাখা হোক।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর