মূক-বধির নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের ভাইয়ের বিরুদ্ধে , গ্রেপ্তার করল পুলিশ

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মূক- বধির নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ। অভিযোগের তীর তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যের ভাইয়ের বিরুদ্ধে। মালদহ (Malda) মোথাবাড়ি থানার পঞ্চনন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ঘটেছে এই বীভৎস ঘটনা। ইতিমধ্যেই পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে অভিযুক্তকে। ঘটনার পর গ্রামবাসীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। তৃণমূলের জেলা সহ-সভাপতি শুভময় বসু আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেই জানিয়েছেন।

কংগ্রেস ও বিজেপি অভিযুক্তর কঠোর শাস্তির দাবি করেছে। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছে দল কোনো ভাবেই অভিযুক্তের পাশে থাকবে না। সূত্রের খবর, এই নাবালিকা তার কাকার বাড়ি যাচ্ছিল গত ২২শে মে। পথে মাসুম নামের এক ব্যক্তি সহ কয়েকজন তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায় একটি ফাঁকা বাড়িতে। অভিযোগ সেখানে মাসুম ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ (Rape) করে।

এরপর ওই নাবালিকা কোনো রকমে বাড়ি ফিরে আসে। নাবালিকার অবস্থা দেখে সন্দেহ হওয়ায় তার মা জানতে চায় কী হয়েছে। এরপর সেই মূক ও বধির নাবালিকা আকার- ইঙ্গিতে ঘটনাটি পরিবারের সদস্যদের জানায়। এরপর পরিবার অভিযোগ জানায় মেথাবাড়ি থানায়। তদন্ত নেমে ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত মাসুমকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

Selling children form home, sexual harassment! Arrested Salkia Tmc leader's daughter-in-law

ঘটনায় অভিযুক্ত অন্যান্যদের ইতিমধ্যেই পুলিশ খুঁজতে শুরু করেছে। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে দক্ষিণ মালদহ জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক অম্লান ভাদুড়ী বলেছেন, “আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মহিলা। কিন্তু তৃণমূলের নেতাকর্মীরা যেভাবে নারী-নিগ্রহের সাথে জড়িয়ে পড়ছে সেটি ভাববার বিষয়। মুখ্যমন্ত্রী মিটিংয়ে বড় বড় নির্দেশ দেন। কিন্তু সে সব ভুয়ো। তার কথা কেউ শোনে না।”