এত বড় অর্থনীতি হয়েও ভূটান ও আফ্রিকার এই দেশগুলির থেকে পিছিয়ে ভারত! জানুন কারণ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি হল ভারত (India)। কিন্তু জানলে অবাক হবেন, অনেক দেশের থেকেই ভারত এখনও অনেক গরিব। না, কোনও প্রথম বিশ্বের দেশ নয়। আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশ এমনকী প্রতিবেশী ভূটানের থেকেও গরিব দেশ ভারত। কিন্তু এটা কী ভাবে সম্ভব? বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি হয়েও কী ভাবে অন্যান্য এই দেশগুলির থেকে গরিব হয় আমাদের দেশ? এই প্রতিবেদনে জানাবো সেই কথা।

   

দিন দিন আরও বেশি উন্নতির দিকে পৌঁছে যাচ্ছে ভারত। প্রতি বছরই ভারতে লগ্নি বাড়ানোর জন্য বিদেশি সংস্থাগুলির সঙ্গে আলোচনা করা হয়। ইতিমধ্যেই দেশে পা রেখেছে বেশ কয়েকটি বিদেশি সংস্থা। শুধু তাই নয়, দেশীয় ব্যবসায়ীরাও ধীরে ধীরে তাদের ব্যবসা বাড়াচ্ছেন। এর ফলে চাঙ্গা হচ্ছে অর্থনীতি। কিন্তু এত কিছুর পরেও ভারতে ধনীর সঙ্গে গরিবের একটি ব্যবধান লক্ষ্য করা যায়। 

India poverty

বিশ্বের মোট গরিব জনসংখ্যার এক তৃতীয়াংশ বসবাস করে ভারতে। একইসঙ্গে এই দেশে খুব বেশি সংখ্যক মানুষ দৈনিক ২ ডলারেরও কম আয় করেন। যার ফলে আফ্রিকা মহাদেশের একাধিক দেশের থেকেও অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে ভারত। কারণ সেই দেশগুলির তুলনায় ভারতের জনসংখ্যার এই অংশের মাথা পিছু আয় (Per Capita Income) অনেকটাই কম। 

যার সরাসরি প্রভাব পড়েছে তালিকায় ভারতের স্থানের উপর। সবচেয়ে অবাক করার মতো বিষয় হল, প্রতিবেশী দেশ ভূটানের থেকেও এই ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েছে ভারত। শুধু তাই নয়, আফ্রিকারও বিভিন্ন দেশ থেকে পিছিয়ে রয়েছে আমাদের দেশ। মাথা পিছু আয়ের নিরিখে বিশ্বের অনেক দেশের থেকেই পিছিয়ে রয়েছে ভারত। এই দেশগুলির নাম শুনলেও বিশ্বাস করতে পারবেন না।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে ভারতের মাথা পিছু আয় ২ হাজার ৬০১ ডলার। অন্যদিকে, ভূটানের মাথা পিছু আয় ৩ হাজার ৪৯৭ ডলার। অর্থাৎ এই নিরিখে ভারতের থেকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে ভূটান। পাশাপাশি, আফ্রিকার দেশ অঙ্গোলার মাথা পিছু আয় ৩ হাজার ২০৪ ডলার। আফ্রিকার আরও একটি দেশ সাও টোমের মাথা পিছু আয় ২ হাজার ৬৯৫ ডলার। আইভরি কোস্টের মাথা পিছু আয় ২ হাজার ৬৪৬ ডলার। সুতরাং দেখতেই পাচ্ছেন, বহু উন্নতিশীল দেশের থেকেই পিছিয়ে রয়েছে ভারত।