তীব্র খাদ্য সংকটে আফগানিস্তান! ২০ হাজার মেট্রিক টন গম পাঠাচ্ছে ভারত, আপ্লূত কাবুল

বাংলা হান্ট ডেস্ক : পাকিস্তানের পর এবার চরম খাদ্য সংকটে ভুগছে আফগানিস্তান। ২০২১ সালে তালিবান (Taliban) কাবুল (Kabul) দখল করে। তার পর থেকেই ক্রমশ খারাপ হয়েছে পরিস্থিতি। এই সংকটজনক পরিস্থিতিতে আফগানিস্তানের (Afghanistan) দিকে সাহায্যের হাত বাড়াল নয়াদিল্লি (New Delhi)।

   

মঙ্গলবার দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয় পাঁচ দেশের বৈঠক। সেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানান, ভারত ২০ হাজার মেট্রিক টন গম পাঠাবে আফগানিস্তানে। জানা যাচ্ছে ইরানের চাবাহার বন্দর হয়ে ওই গম পৌঁছবে সেখানে। পাশাপাশি সেদেশের মহিলা ও সংখ্যালঘু-সহ সমস্ত মানুষের অধিকার রক্ষা করতে রাজনৈতিক পরিকাঠামোর উন্নতির দাবিও জানিয়েছে ভারত।

মঙ্গলবার কাজাখস্তান, কিরঘিজস্তান, উজবেকিস্তান, তাজিকিস্তান এবং তুর্কমেনিস্তানের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে ভারত। ভারত-মধ্য এশিয়ার যৌথ ওই বৈঠকেই নয়াদিল্লি ঘোষণা করে ভারতের তরফে ২০ হাজার মেট্রিক টন গম পাঠানো হবে আফগানিস্তানে। সেই সঙ্গেই আফগানিস্তানের প্রশাসনের আরও উন্নতি ঘটানোরও দাবি জানিয়েছে ভারত।

afghanistan

ইদানিং কালে গোটা বিশ্বের চিন্তা বাড়িয়েছে আফগানিস্তানের সাধারণ মানুষের দুর্দশা। একদিকে তীব্র খাদ্য সংকট, অন্যদিকে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ফলে সাধারণ আফগান বিশেষত মহিলা ও সংখ্যালঘুদের চরম দুর্দশার ছবি ফুটে উঠতে দেখা গিয়েছে ২০২১ সালের শেষার্ধ থেকে।

এই অবস্থার পরিবর্তনের ডাক দিচ্ছে ভারত। এরই পাশাপাশি ভারত জোর দিয়েছে কোনওভাবেই যেন আফগানিস্তানকে জঙ্গিদের আশ্রয়, প্রশিক্ষণ, পরিকল্পনা কিংবা অন্য কোনও রকম কাজে ব্যবহার না করা হয়। ইতিমধ্যেই চিনের সঙ্গেও বাণিজ্যিক সম্পর্ক স্থাপন করেছে তালিবান।

গত মাসে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়েছিলেন, এ বার আফগানিস্তানকে সাহায্য হিসেবে ধার্য করা হয়েছে পঁচিশ লক্ষ ডলার। তালিবান সরকারের মুখপাত্র সোহেল সাহিন নয়াদিল্লির সহায়তার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, ‘আফগানিস্তানকে দেওয়া ভারতের উন্নয়ন প্যাকেজে আমরা খুশি। ওই সাহায্যের জন্য ভারতকে ধন্যবাদ। এর ফলে দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও উন্নত হবে।’