শিয়ালদহ লাইনে AC লোকাল নিয়ে এবার বড়সড় আপডেট! রেলের পক্ষ থেকে যা বলা হল…

বাংলাহান্ট ডেস্ক : গোটা ভারতে পরিবহনের মেরুদন্ড বলা হয় ভারতীয় রেলকে। বিশেষ করে ভারতের লোকাল ট্রেনগুলি যাত্রীদের ভরসার অন্যতম প্রধান জায়গা। অফিস থেকে শুরু করে স্কুল-কলেজ, অথবা অন্যান্য প্রয়োজনে স্বল্প দূরত্বের যাত্রার জন্য অধিকাংশ মানুষ ভরসা রাখেন লোকাল ট্রেনের উপর। গোটা ভারতের মতো কলকাতাতেও লোকাল ট্রেনের চাহিদা বিশাল।

   

কলকাতার লোকাল ট্রেনগুলি বিভিন্ন শহর ও শহরতলীর সাথে সংযোগ স্থাপন করে। কলকাতার মুখ্য দুই স্টেশন হাওড়া ও শিয়ালদায় প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষের জমায়েত হয় এই রেলের মাধ্যমে। এরপর সেখান থেকে যাত্রীরা পৌঁছান নিজেদের গন্তব্যে। যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে রেল কর্তৃপক্ষ একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

আরোও পড়ুন : সারাবছরই থাকে বিপুল চাহিদা, ঘরে বসে শুরু করুন এই ব্যবসা! কয়েক মাসেই হবেন লাখপতি

এমনকি রেলকে নিয়ে ভবিষ্যতে আরো বড় পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। কিছুদিন আগেই পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে শিয়ালদা ডিভিশনের যাত্রীদের জন্য একটি সুখবর উঠে আসছিল। পূর্ব রেল জানায় মাতৃভূমি লোকালে একটি এসি ফার্স্ট ক্লাস কোচ সংযুক্ত করা হবে। প্রাথমে পরীক্ষামূলকভাবে এসি ফার্স্ট ক্লাস কোচ চালানো হবে।

আরোও পড়ুন : বিশ্বের দরবারে বাংলার জয়জয়কার! খড়গপুর IIT’র প্রাক্তনী চিন্ময় পেলেন বিশ্বসেরা বিজ্ঞানীর তকমা

সমাজ মাধ্যমে এই কোচের বেশ কিছু ছবিও ভাইরাল হয়েছিল কিছুদিন আগেই। জানা যাচ্ছিল পুজোর আগেই পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে শুরু হতে পারে রানাঘাট-শিয়ালদহ মাতৃভূমি মহিলা স্পেশাল ট্রেনে ফার্স্ট ক্লাস কোচের ব্যবহার। আরামদায়ক আসন , কুশন, কার্পেট, সুন্দর মেঝে, দেওয়ালে চিত্রকর্ম এবং উন্নত নান্দনিকতা এই কোচের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

img 20231012 150020

সূত্রের খবর, গুঞ্জন শুরু হয়েছিল, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১৫ই অক্টোবর থেকেই মাতৃভূমি লোকালে যুক্ত হতে পারে এই ফার্স্ট ক্লাস কোচ। তবে সরকারি তরফে এখনো কিছু বলা হয়নি যে আগামী ১৫ই অক্টোবর থেকে এই পরিষেবা আদৌ শুরু হবে কিনা। মনে করা হচ্ছে এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত রেলের পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়া যায়নি। আদৌ কবে এই পাইলট প্রজেক্ট শুরু হয় এখন সেই দিকেই তাকিয়ে সবাই।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর