এবার সবসময় ঝকঝকে থাকবে লোকাল ট্রেন, বিরাট পদক্ষেপ নিল রেল! খুশি যাত্রীরাও

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ভারতীয় রেল (Indian Railways) বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম রেল পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা। ভারতীয় রেল বেশ কয়েকটি জোনে বিভক্ত। এগুলির মধ্যে পূর্ব রেল অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ শাখা। পূর্ব রেলের অন্তর্গত বিভিন্ন স্টেশন থেকে নিয়মিত ছাড়ে বন্দে ভারত, রাজধানী, শতাব্দী এক্সপ্রেস এর মতো ট্রেনগুলি।

প্রিমিয়াম ট্রেন ছাড়াও পূর্ব রেল বিভিন্ন গ্রাম-মফস্বল-শহরতলিতে পরিষেবা প্রদান করছে। এবার পূর্ব রেল লোকাল ট্রেন পরিষ্কার করার জন্য অত্যাধুনিক পন্থা বার করল। লোকাল ট্রেন পরিষ্কার করার জন্য পূর্ব রেল বিভিন্ন জায়গায় বসিয়েছে অটোমেটিক কোচ ওয়াশিং প্ল্যান্ট (ACWP)।

রেলওয়ে বলছে এই মেশিনের ফলে যেমন জল খরচা কমানো যাবে, তেমনই আরো ভালোভাবে পরিষ্কার করা যাবে ট্রেনগুলিকে। ইএমইউ ট্রেনগুলিকে আরো ভালোভাবে পরিষ্কার করার জন্য অটোমেটিক ওয়াশিং প্ল্যান্ট বসানো হয়েছে হাওড়ার ইএমইউ কারশেডে। রেলের দাবি এই উদ্যোগের ফলে প্রতিদিন উপকৃত হবেন কয়েক লক্ষ যাত্রী।

আরোও পড়ুন : চাকা থেকে শুরু করে সিট, সবটাই কাঠের! অভিনব সাইকেল বানিয়ে তাক লাগালেন শিলিগুড়ির যুবক

অটোমেটিক কোচ ওয়াশিং প্ল্যান্টে রয়েছে ডিটারজেন্ট সলিউশন ঘূর্ণায়মান ব্রাশ। এই সিস্টেমটি একাধিক স্তরে পরিষ্কার করে ট্রেনকে। মূলত এই সিস্টেম ট্রেনের বাইরের অংশ পরিষ্কার করবে। পাশাপাশি এতে রয়েছে বর্জ্য পরিশোধন ব্যবস্থা। এছাড়াও জলের প্ল্যান্ট রয়েছে ট্রেনের বাইরের অংশ ধোয়ার জন্য।

আরোও পড়ুন : “আমায় ভালোবাসার জন্য সলমনকে…”, এবার ভাইজানের কেশহীন লুক নিয়ে মন্তব্য শাহরুখের

রেল জানিয়েছে, মাত্র ৮ মিনিটের মধ্যে ১২ কোচের ইএমইউ ট্রেনের পুরো রেকের বাইরের অংশ ধোয়া সম্ভব হবে এই সিস্টেমের মাধ্যমে। এই সিস্টেমের দ্বারা হাওড়া ইএমইউ কারশেডে প্রতিদিন গড়ে ১৩টি ইএমইউ রেক পরিষ্কার করা যাবে। এছাড়াও এই প্ল্যান্টে রয়েছে অত্যাধুনিক সেন্সর সিস্টেম।

coach washing system

কারসেডে ট্রেন ঢুকলেই এই সেন্সর দ্বারা ধোয়া শুরু হয়ে যাবে। এই সিস্টেম ট্রেন ধোয়ার কাজে ২০ শতাংশ বিশুদ্ধ জল ও ৮০ শতাংশ পুনর্ব্যবহৃত জল ব্যবহার করবে। এছাড়াও এই সিস্টেমে ডিটারজেন্ট এর নিয়ন্ত্রিত ব্যবহার হয়ে থাকে। এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয় না কোচের বাইরের রং। পাশাপাশি আরো ভালোভাবে পরিষ্কার হয় ট্রেন।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর