যাত্রীদের জন্য দুর্দান্ত খবর! বন্দে ভারত নিয়ে রেলমন্ত্রী দিলেন বড়সড় আপডেট

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : শুরুর আগে থেকেই জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিল ভারতের সেমি হাইস্পিড বন্দে ভারত এক্সপ্রেস (Vande Bharat Express)। যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য থেকে গতি, সবকিছুতেই এই ট্রেন টেক্কা দিয়েছিল বিশ্বের বহু বিখ্যাত ট্রেনকে। তবে এই ট্রেনে খামতি বলতে ছিল একটি জিনিসের। স্লিপার কোচ অর্থাৎ এই ট্রেনে শোয়ার ব্যবস্থা ছিল না। এই ট্রেনটি চেয়ার কার।

যাত্রী স্বাচ্ছন্দের দিক থেকে এই ট্রেন এগিয়ে থাকলেও স্লিপার না থাকার জন্য ট্রেনটি শতাব্দি, রাজধানী এক্সপ্রেসের সমগোত্রীয় হতে পারছিল না। জানা যাচ্ছে এবার এই খামতি দূর করতে চলেছে রেল। স্লিপার ক্লাস আসতে চলেছে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে। জানা যাচ্ছে ইতিমধ্যেই অত্যাধুনিক স্লিপার ক্লাসের বন্দে ভারত তৈরীর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।

স্লিপার বন্দে ভারত চলে আসবে আগামী বছরের শুরুতেই। রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব (Ashwini Vaishnaw) নিজে এই কথা জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার। একটি সাক্ষাৎকারে রেলমন্ত্রী বলেন, বন্দে চেয়ার কার, বন্দে মেট্রো এবং বন্দে স্লিপার্স- এই তিন ধরনের বন্দে ভারত এক্সপ্রেস আসতে চলেছে।

বন্দে ভারতে এই প্রকারভেদ হবে দূরত্ব ও যাত্রী স্বাচ্ছন্দের ভিত্তিতে। ১০০ কিলোমিটারের কম দূরত্বের জায়গা অর্থাৎ লোকাল ট্রেনের ক্ষেত্রে আসবে বন্দে মেট্রো, বন্দে ভারত চেয়ার কার থাকবে ১০০ থেকে ৫৫০ কিলোমিটারের দূরত্বে আর স্লিপার বন্দে ভারত থাকবে ৫৫০ কিলোমিটার এর মধ্যে। স্লিপারে থাকবে যাত্রীদের শোয়ার ব্যবস্থা।

এই স্লিপার কোচ তৈরির কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে চেন্নাইয়ে ইন্টিগ্রেটেড কোচ ফ্যাক্টরিতে। রেলমন্ত্রী জানিয়েছেন এই তিন ধরনের বন্দে ভারত এক্সপ্রেস আগামী বছর ফেব্রুয়ারি-মার্চের মধ্যেই ট্র্যাকে নেমে যাবে। এছাড়াও তিনি জানান প্রতিটি রাজ্য জুনের মধ্যে একটি করে অন্তত বন্দে ভারত এক্সপ্রেস পেয়ে যাবে।

vande bharat

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব আরও জানান, রেললাইন গুলির আগামী ৩-৪ বছরের মধ্যে আরও উন্নতি করা হবে যাতে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ঘন্টায় ১৬০ কিলোমিটার গতিবেগে চলাচল করতে পারে। বন্দে ভারত এই গতিতে চললে দেশের জন্য এক যুগান্তকারী সময়ের সৃষ্টি হবে। এছাড়াও এই ট্রেন টেক্কা দিতে পারবে শতাব্দি, রাজধানী এক্সপ্রেস এর মত দ্রুতগতির ট্রেনগুলিকে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর