টিকিট তো কাটেনই! কিন্তু দেখুন, গোটা ট্রেনটাই ভাড়া করতে কত দিতে হবে আপনাকে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আমাদের দেশের কোটি কোটি মানুষ যাতায়াতের জন্য ভরসা রাখেন ভারতীয় রেলের (Indian Railways) উপর। ট্রেনকে ভারতের লাইফ লাইন বলা হয়ে থাকে সেই কারণে। প্রতিদিনের কাজকর্মের জন্য লোকাল ট্রেনে চড়ে কাছে কোথাও যাওয়া, আবার ঘুরতে যাওয়া কিংবা চিকিৎসার জন্য দূরপাল্লার ট্রেনে করে দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে যাওয়ার জন্য আমরা ভরসা রাখি ট্রেনের উপর।

   

ট্রেনের ভাড়া প্রত্যেকের নাগালের মধ্যে হওয়ায় আমরা অধিকাংশ সময়ে ট্রেনে যাতায়াত করতে পছন্দ করি। ভারতীয় রেলের গোরাপত্তন হয় সুদূর ব্রিটিশ আমলে। সেই সময় ব্রিটিশরা নিজেদের ব্যবসার উন্নতির জন্য শুরু করে ট্রেন পরিষেবা। এরপর ধীরে ধীরে ভারতবর্ষে বিস্তার হতে থাকে রেললাইন। পরবর্তীকালে সাধারণ মানুষের যাতায়াতের প্রধান গন্তব্য হয়ে ওঠে এই ট্রেন।

স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে সরকার রেল পরিষেবাকে আরো সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য নানান ধরনের উন্নতিমূলক কাজ করেছে। বর্তমান সময়েও নানান ধরনের আধুনিকীকরণের কাজ চলছে। ট্রেনে যাতায়াতের জন্য আমাদের নির্দিষ্ট ভাড়া দিতে হয়। তবে আপনি কি জানেন আপনি চাইলে বুক করতে পারেন গোটা একটা ট্রেন? কিছু পদ্ধতির রয়েছে একটা ট্রেন বুক করার জন্য।

আরোও পড়ুন : ৪, ৫, ১১ কোনটাই নয়! কেন শুধুমাত্র ৭ পাকেই বিয়ে হয়? আজও উত্তর জানেন না বহুজনেই

আপনি চাইলে বুক করতে পারেন ট্রেনের গোটা একটা কোচ। আবার প্রয়োজন অনুযায়ী গোটা ট্রেনটাই বুক করে নিতে পারেন। ইচ্ছা করলে আপনি ট্রেনের কোচ বা গোটা ট্রেন বুক করতে পারবেন ফুল ট্যারিফ রেট (FTR) পরিষেবার নিয়ম অনুযায়ী। সেই জন্য আপনাকে আগে বিশেষ ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে https://www.ftr.irctc.co.in/ftr/ সাইটে।

আরোও পড়ুন : পুজোর আগেই ভোলবদল! আমূল পরিবর্তন দীঘায়, গেলেই নয়া রূপ দেখবেন সৈকত নগরীর

এই সাইটে রেজিস্ট্রেশনের পর আপনার কাছে জানতে চাওয়া হবে আপনি একটি কোচ বুক করতে চান নাকি গোটা ট্রেন? সেই অপশন থেকে আপনাকে আপনার বিকল্প বেছে নিতে হবে। এরপর আপনাকে বিভিন্ন তথ্য দিয়ে ফরম ফিলাপ করতে হবে। সেখানে আপনাকে জিজ্ঞাসা করা হয় কবে কোথায় যাবেন, কী উদ্দেশ্যে যাবেন ইত্যাদি। সেখানে আপনি আপনার পছন্দ মতো এসি ফার্স্ট ক্লাস, এসি 2 টায়ার, এসি 3 টায়ার, এসি 2 কাম 3 টায়ার, এসি চেয়ার কার, স্লিপার বুক করতে পারবেন।

indian railways train main 1500x785

সাধারণ ভাড়ার থেকে এক্ষেত্রে আপনাকে অতিরিক্ত ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ বেশি প্রদান করতে হবে। একই সাথে আপনাকে দিতে হবে সিকিউরিটি ডিপোজিট। আপনার যাত্রা শেষ হয়ে গেলে সিকিউরিটি ডিপোজিট ফেরত দিয়ে দেওয়া হবে। তবে একটি কোচের ভাড়া সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এটি আবার নির্ভর করছে আপনি কোথায় যাচ্ছেন তার উপর। এছাড়াও একটি গোটা ট্রেন বুক করতে গেলে আপনার খরচ হতে পারে ৯ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

সম্পর্কিত খবর