চাঁদের মাটি স্পর্শ করল রোভার প্রজ্ঞান! ISRO-র শেয়ার করা ভিডিও দেখে শিহরিত হবেন আপনিও

বাংলা হান্ট ডেস্ক : শেখরের শিখর ছুঁয়েছে দু’দিন আগেই। ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে মুদ্রিত হয়েছে ‘ভারত’ (India) নামটা। প্রশংসায় ভাসছে ইসরো (Indian Space Research Organisation)। এবার শুরু হল আসল অভিযান। চন্দ্রযান-৩ (Chandrayaan 3) চাঁদে সফল অবতরণের পর এই প্রথম চাঁদের মাটি স্পর্শ করল রোভার প্রজ্ঞান (Rover Pragyan)। আর সেই ভিডিয়ো প্রকাশ করল ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা।

মাতৃরূপা ল্যান্ডার বিক্রম : ঠিক যেভাবে মায়ের গর্ভ থেকে শিশুর জন্ম হয় এই পৃথিবীর বুকে, ঠিক সে ভাবেই যেন ল্যান্ডার বিক্রমের পেট থেকে ধীরে ধীরে বেরিয়ে এসে চাঁদের মাটিতে নামল রোভার প্রজ্ঞান। আর মাতৃস্নেহে সেই ঐতিহাসিক মুহূর্তের ছবি এবং ভিডিয়ো তুলে রাখল ল্যান্ডার বিক্রম। তড়িঘড়ি সেই ছবি পাঠিয়ে দিল ইসরোর কাছে।

   

কী বলল ISRO? ভিডিয়োটি শেয়ার করে ইসরো এক্স হ্যান্ডলে লিখেছে, ‘চন্দ্রপৃষ্ঠে রোভার প্রজ্ঞানের অবতরণ। ল্যান্ডার বিক্রম থেকে বেরিয়ে চাঁদের মাটি ছুঁল সে। সেই ভিডিয়ো তুলল ল্যান্ডার বিক্রম।’ গত ২৩ অগস্ট ভারতীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ৪ মিনিটে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সফল ভাবে অবতরণ করে চন্দ্রযান-৩। আর সেই সফল অবতরণের সঙ্গে সঙ্গে গোটা বিশ্বে এক অনন্য নজির গড়েছে ভারত।

রোভার অবতরণের ভিডিও : চন্দ্রযান-৩ অবতরণ করার ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী ছিল গোটা ভারত, এমনকি গোটা বিশ্ব। চাঁদের মাটি ছোঁয়ার পর পরই ছবি তুলেছিল ল্যান্ডার বিক্রম। সেই ছবি নাসা প্রকাশও করেছিল। কিন্তু বিক্রমের পেট থেকে রোভার প্রজ্ঞান বেরিয়ে আসছে এমন ছবি বা দৃশ্য নিয়ে দেশবাসীর মধ্যে চরম কৌতূহল তৈরি হচ্ছিল গত দু’দিন ধরেই। সেই কৌতূহলের নিরসন করল বিক্রম। চাঁদের মাটিতে সফল ভাবে রোভারের অবতরণের ভিডিয়ো পাঠাল সেটি।

ধীরে ধীরে বেরিয়ে এল রোভার : বুধবার বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিট থেকে সেটিকে নামানোর কাজ শুরু হয়। অবতরণ প্রক্রিয়ায় মোট ১৯ মিনিট সময় লেগেছে। ধাপে ধাপে ল্যান্ডারের গতি কমিয়ে সেটিকে চাঁদের দিকে নামানো হয়। সন্ধ্যা ৬টা ৪ মিনিটে চাঁদের মাটি ছুঁয়ে ফেলে বিক্রম। এর পর বেশ কয়েক ঘণ্টা বিশ্রাম নেওয়ার পর বিক্রমের দরজা খুলে যায়। পেট থেকে বেরিয়ে আসে রোভার।

আরও পড়ুন : ‘চাঁদে জমি দখল নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বোমাবাজি!’ বিজেপি নেতার পোস্টে হাসির রোল

প্রজ্ঞানের খবর দিল ISRO : বৃহস্পতিবার সকালে প্রজ্ঞানের অবতরণের কথা জানায় ইসরো। চাঁদে যে সময় বিক্রম পা রেখেছিল, তখন সেখানে সবে ভোরের আলো ফুটেছে। পৃথিবীর সময় অনুযায়ী আগামী ১৪ দিন সেখানে দিনের আলো থাকবে। এই সময়ের মধ্যে চাঁদের মাটিতে ঘুরে ঘুরে রোভার তথ্য সংগ্রহ করবে। বিক্রম সেই তথ্য পাঠাবে পৃথিবীতে। সৌরশক্তিতে কাজ করবে বিক্রম এবং প্রজ্ঞান।

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর