বিদেশের মাটিতে সম্বলপুরী শাড়ি পরে বাজিমাত ভারতীয় মহিলার! দৌড়ালেন ৪২ কিলোমিটার ম্যারাথনে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বিদেশের রাস্তায় বাজিমাত করে দিলেন এক ভারতীয় মহিলা! ভারতীয় মহিলাদের সাজপোশাকের কথা উঠলেই শাড়ির কথা আসবেই। আমদের দেশের সংস্কৃতির সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছে ১২ হাত লম্বা এই বিশেষ ধরনের পোশাকটি। আজকাল তরুণ প্রজন্মের আধুনিক মহিলারা অনেকেই শাড়ি পরতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন না। কিন্তু এখনও অনেকেই আছেন যাঁরা এই পোশাকেই বেশ স্বচ্ছন্দ। ওড়িশার এক মহিলা তো চমৎকারই করে দিলেন এই পোশাক পরে। 

   

সম্প্রতি ব্রিটেনে একটি ম্যারাথনের (Marathon) আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে শাড়ি পরেই ৪২.৫ কিলোমিটার দীর্ঘ রাস্তা দৌড়ে নিলেন ওই ভারতীয় মহিলা! তাঁর নাম মধুস্মিতা জেনা দাস। ৪১ বছর বয়সি মধুস্মিতা আদতে ওড়িশার বাসিন্দা হলেও বর্তমানে ব্রিটেনেই বসবাস করেন। রবিবার ব্রিটেনের ম্যানচেস্টারে সে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ম্যারাথন দৌড়ের আয়োজন করা হয়েছিল।

সেখানে বাকি প্রতিযোগীদের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা অবতারে দেখা যায় এই ওড়িয়া মহিলাকে। একটি সম্বলপুরী শাড়ি পরে ৪২.৫ কিলোমিটার দীর্ঘ রাস্তা দৌড়ে সবাইকে অবাক করে দিয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, অত্যন্ত কম সময়ে এই রাস্তা সম্পূর্ণ করেন তিনি। মাত্র ৪ ঘণ্টা ৫০ মিনিটে ৪২.৫ কিলোমিটার রাস্তা দৌড়ে ম্যারাথন শেষ করেন মধুস্মিতা। তাঁর এই কাজে অভিভূত হয়ে গিয়েছেন ভারতীয়রা। 

ওই ম্যারাথনের ছবি শেয়ার করা হয়েছে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, লাল শাড়ি এবং কমলা রঙের স্পোর্টস জুতো পরে দৌড়াচ্ছেন মধুস্মিতা। অন্য একটি টুইটার হ্যান্ডেল থেকে তাঁর দৌড় শেষ করার ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, মধুস্মিতার বাড়ির লোকজন চিৎকার করে তাঁকে উৎসাহ দিচ্ছেন। তাঁর পরিবার সূত্রে খবর, মধুস্মিতা এর আগেও একাধিক ম্যারাথন ও আল্ট্রা ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেছেন। 

এই খেলোয়াড়ের শাড়ি পরে বিদেশের মাটিতে ম্যারাথনে দৌড়ানোর ভিডিও থেকে খুবই আপ্লুত হয়েছেন নেটিজেনরা। বিশেষত ভারতীয়রা প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে গিয়েছেন। মধুস্মিতা বিদেশের মাটিতে ভারতের সংস্কৃতি তুলে ধরছেন, সেখানে গিয়েও যে দেশের ঐতিহ্যকে ভোলেননি, তা নিয়েই গর্বিত বোধ করছেন তাঁরা। এক নেটিজেনের মন্তব্য, ‘এটি অত্যন্ত গর্বের মুহূর্ত!’ অন্য একজন লিখেছেন, ‘কোনও একদিন কেউ শাড়ি পরে ইউএস ওপেনে খেলছেন।’ 

সম্পর্কিত খবর