টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

রাশিয়াকে লাইনে আনতে মোক্ষম দাওয়াই ভারতের, বেগতিক দেখে বন্ধুত্ব অটুট রাখার বার্তা রাশিয়ার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ভারত (india) এবং রাশিয়ার (russia) মধ্যেকার বন্ধুত্বের সম্পর্ক বহু পুরনো। ১৯৭১ সালের ভারত পাকিস্তানের যুদ্ধের সময় আমেরিকা, চীন, ব্রিটেন এবং পাকিস্তান ভারত এবং সোভিয়েত রাশিয়ার সেই বন্ধুত্বের নজির দেখেছে। তবে ১৯৭১ থেকে ২০২১, সময় বদলেছে, পরিতস্থিতিও অনেক বদলে গেছে। সেইদিনের সেই সোভিয়েত রাশিয়া আজকের দিনে রাশিয়ায় পরিণত হয়েছে আর ভারতও আগের থেকে অনেক নেশি শক্তিশালী এবং পরিণত হয়েছে।

বর্তমান দিনে ভারতের ফরেন পলিসিতেও কিছুটা বদল এসেছে। চীনকে শায়েস্তা করতে কিছুটা ওয়েস্টার্ন ডেমোক্রেসির দিক ঝুঁকছে ভারত। অন্যদিকে বিগত বেশকিছু সময় ধরে রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রী ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরের বিষয়ে ভারতের বিরুদ্ধে কড়া মন্তব্য করেছেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোন বড় পদক্ষেপ নেয়নি ভারত।

রাশিয়াকে একটু শিক্ষা দিয়ে বিগত ২০ বছর ধরে ভারত এবং রাশিয়ার মধ্যে হয়ে আসা অ্যানুয়াল সাবমিটকে এবছরের জন্য স্থগিত করে দেয় ভারত। পূর্ব নির্ধারণ অনুযায়ী এবছর এই অনুষ্ঠানের দায়িত্ব ভারতের উপর ছিল। সেইকারণে রাশিয়াকে একটু টাইট দিতে ভারত এই অনুষ্ঠান স্থগিত করে দেয়।

ভারতের ছোঁড়া এই তীর একেবারে নিশানায় গিয়ে লাগে। সংবাদ সূত্রে জানা যায়, রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রী মিডিয়ার সামনে এসে বলেছেন, ভারতের বিদেশমন্ত্রী তথা আমার পরম বন্ধু এস, জয়শঙ্করের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনিও আমার সঙ্গে সহমত হয়েছেন যে, কিছু কিছু দেশ নিজের প্রয়োজনে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরের বিষয়কে কাজে লাগাচ্ছে। যার ফলেও ভবিষ্যতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তবে আমি জানি ভারত এই বিষয় এমন কোন পদক্ষেপ নেবে না, যেখানে কোন লাভজনক কিছু নেই’।

তিনি আরও বলেন, ‘বিগত সময়ে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরের বিষয় আমার বেশ কিছু মন্তব্য ভারতীয় মিডিয়া সংস্থাগুলোতে বারংবার দেখানো হয়েছে। আমার মন্তব্য নিয়ে ভারতে বহু সমালোচনা, পর্যালোচনা হয়েছে। তবে আমি একটা কথা পরিস্কার করে বলে দিতে চাই যে, আমরা ভারতের সঙ্গে কোনরকম ভুল বোঝাবুঝি বাড়তে দিতে চাই না। আমাদের মধ্যেকার বন্ধুত্বের সম্পর্ক আগের মতই থাকবে, কোন পরিবর্তন হবে না। চীনের সঙ্গে আমাদের সম্পর্কের আঁচ পড়বে না ভারতের উপর’।

Back to top button