টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘অভিষেক কি বন্দুক নিয়ে ঘোরেন? ওসব ডায়লগ কালিঘাটে দেবেন!’ হুঁশিয়ারি দিলীপ ঘোষের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : এবার অভিষেককে পাল্টা আক্রমণ করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তিনি বলেন, ‘অভিষেক কি বন্দুক নিয়ে ঘোরেন নাকি? এত হিম্মত।’ ঘটনার সূত্রপাত গেরুয়া শিবিরের নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে। যা নিয়ে রাজনৈতিক তর্জা চলছেই। উঠে এসেছে বিজেপি-পুলিস হাতাহাতির চিত্রও। মঙ্গলবারের অভিযানে একদিকে যেমন পুলিসেকে লক্ষ্য করে চলেছে ইটবৃষ্টি অপরদিকে তেমনই পুলিস কর্মীদের রাস্তায় ফেলে মারধর করার ঘটনাও দেখা গেছে। এই ঘটনায় আহত পুলিস আধিকারিককে দেখতে এসে বুধবার তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) বলেন, ‘আমার সামনে এমন ঘটনা ঘটলে মাথায় গুলি করে দিতাম।’ অভিষেকের এই মন্তব্য ঘিরেই চর্চা শুরু হয়ে গেছে রাজনৈতিক মহলে।

বৃহস্পতিবার নিউটাউনে প্রাতঃভ্রমণে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ অভিষেককে তোপ দেগে বলেন, ‘বাঁশের চেয়ে কঞ্চির দর বেশি। উনি কি আজকাল বন্দুক নিয়ে ঘোরেন? তাহলে গুলি করার কথা বলেন কীভাবে?’

এখানেই শেষ নয়। দিলীপবাবু আরও বলেন, ‘এই পুলিশ ভবানীপুর থানায় টেবিলের তলায়, আলমারির পিছনে লুকিয়ে পরে। ফালতু বকওয়াস করবেন না। আপনাদের দম আমার জানা আছে। এত লুঠপাট হয়েছে কারুর টিকির নাগাল পেয়েছেন? গুলি চালাবেন? এত হিম্মত?’ এরপরই অভিষেকের উদ্দেশে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘কালীঘাটে ডায়লগ দেবেন। বাইরে আসবেন না।’

নবান্ন অভিযানে আহত পুলিস আধিকারিক দেবজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে দেখতে এসএসকেএম-এ যান অভিষেক। হাসপাতালে দাঁড়িয়েই অভিষেক বলেন, ‘আমি অফিসারকে কুর্নিশ জানিয়েছি। যেভাবে তিনি ধৈর্য আর সংযমের পরিচয় দিয়েছেন তার জন্য আমি স্যালুট জানিয়েছি। আমি যদি ওখানে থাকতাম তাহলে হয়ত মাথা লক্ষ্য করে গুলি চালাতাম।’

Related Articles