টাইমলাইনভারত

যোধপুরে আমেরিকার মতো কাণ্ড! মাস্ক না পড়ায় ব্যাক্তির ঘাড়ে চরলেন পুলিশ কর্মী! মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল ভিডিও

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আমেরিকায় অশ্বেত জর্জ ফ্লয়েডের (George floyd) মৃত্যুতে পুলিশের বর্বরতা দেখা গেছে। আমেরিকান পুলিশ কর্মী ফ্লয়েডকে নিজের হাঁটু দিয়ে চেপে ধরেছিল, যার ফলে ফ্লয়েড নিঃশ্বাস নিতে পারেনি আর মারা গেছে। আর এবার সেরকম চিত্র রাজস্থানের যোধপুরে (Jodhpur) দেখা গেলো। সেখানে এক পুলিশকর্মী এক ব্যাক্তির ঘাড়ে চেপে তাঁকে মারধর করে। পুলিশের ওই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল (Video viral) হয়ে যায়। ওই ব্যাক্তির দোষ শুধু এটাই ছিল যে, সে মাস্ক ছাড়া রাস্তায় বের হয়েছিল। আর পুলিশকর্মী তাঁর চালান কাটতে চাইছিল।

এই ঘটনা বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজস্থানের যোধপুরে হয়। সেখানে চৌপাসানী হাউসিং বোর্ডের সামনে বাস স্টপে মুকেশ প্রজাপত দাঁড়িয়ে ছিলেন। আর এরমধ্যে পুলিশের দুই জওয়ান ওনার কাছে যান আর মাস্ক না পড়ার জন্য ওনার চালান কাটা শুরু করেন। সেই সময় মুকেশ বলেন আমি মাস্ক পড়ে আছি। তখন পুলিশ জানায় মাস্ক নাকের নীচে আছে। আর এই বলেই পুলিশ ওই ব্যাক্তির চালান কাটা শুরু করে দেন। এরপর পুলিশ আর মুকেশের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় আর মারপিটও হয়।

চালান কাটার সময় মুকেশ সেখান থেকে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশকর্মীরা তাঁকে জাপটে ধরে। এরপর হাতাহাতি শুরু হয়। এক পুলিশকর্মী মুকেশকে ৪৪ ডিগ্রি তাপমাত্রায় মাটিতে মুখ ঠুসে ধরে আর নিজের হাঁটু তাঁর উপর চরিয়ে দেয়। রাস্তা দিয়ে চলা আরও দুজন পুলিশকে সাহায্য করে। এরপরেও যখন মুকেশকে কাবু করা যায় না। মুকেশ নিজেকে ছাড়ানর জন্য পুলিশের উপরে ঘুসিও চালায়। এরপর পুলিশও মুকেশকে মারধর করে।

ঘটনার পর পুলিশ মুকেশকে দেবনগর থানায় নিয়ে পৌঁছায় আর তাঁর বিরুদ্ধে রাজকার্যে বাধা দেওয়ার চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়। দেবনগর থানার ইনচার্জ সোমকরন চারণ বলেন মুকেশের বিরুদ্ধে পুলিশের সাথে মারপিট আর রাজকার্যে বাধা দেওয়ার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Back to top button