টাইমলাইনকলকাতা

বড় খবর: রাজ্যপালকে ঘিরে বিক্ষোভ যাদবপুরে, পদ্মপাল বলে কটাক্ষ পড়ুয়াদের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : আবারও উত্তপ্ত হল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। এর আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভে দেখানো হয়েছিল এবং বাবুল সুপ্রিয়র জামা টেনে ছিঁড়ে দিয়ে মাস কয়েক আগে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। এবার আবারও উত্তপ্ত হল বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। ছাত্র বিক্ষোভের মুখে পড়ছেন স্বয়ং বিশ্ববিদ্য়ালয়ের আচার্য তথা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। এদিন কোর্ট বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়তে হল রাজ্যপালকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে রাজ্যপালের গাড়ি আটকে বিক্ষোভ চলছে।

রাজ্যপালের কনভয় আটকে বিক্ষোভ দেখায় পড়ুয়া এবং শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীরা। সকলের দাবি একবাদ্যে বিজেপির হয়ে কথা বলছেন তাই দাবি কোনো ভাবেই মেনে নেওয়া যাবে না। রাজ্যপালকে ঘিরে ছাত্ররা পদ্মপাল বলে স্লোগান তুলে কালো পতাকা দেখায়। এককথায় রাজ্যপালকে ঘিরে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ঘিরে যেভাবে রাজ্যে উত্তেজনা ছড়িয়েছে তাই পড়ুয়াদের সকলেরই দাবি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন কখনই মেনে নেওয়া সম্ভব নয়।

শুধু পড়ুয়ারাই নন একই কথা শিক্ষাকদেরও। তাই এদিনে যাদবপুরের এক নম্বর গেটের সামনে রাজ্যপালের দাঁড় করানো গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় পড়ুয়ারা। পড়ুয়াদের দাবি, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদ এটা।উল্লেখ্য, একদিন আগে বিজেপি নেতা বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরী সাংবাদিকদের সামনে বলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা পড়াশোনা করে নাকি রাজনীতি করার জন্য আসেন সেটা বোঝা মুশকিল।

পাশাপাশি পড়ুয়াদের অতি বামপন্থী বলেও তকমা দেন তিনি এমনকি ভারতবর্ষের কোনও কিছুই তাদের ভালো লাগে না বলেও মন্তব্য করেন বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরী। তাই ভারতের যখন কিছুই ভাল লাগে না তা হলে ভারতে না থেকে চিনে চলে যাওয়ার পরামর্শ দেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের।

Back to top button