CBI-ED সমন্বয়ের অভাব! ‘আর একটা সারদা চাই না’, প্রাথমিক নিয়োগ মামলায় বললেন বিচারপতি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় (Primary Recruitment Case) শুক্রবার আদালতে রিপোর্ট জমা করল সিবিআই (CBI)। আর কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার সেই রিপোর্ট নিয়ে ‘বিস্ফোরক’ মন্তব্য শোনা গেল কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্য়ায়ের মুখে (Justice Abhijit Ganguly)। পাশাপাশি এদিন প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ মামলায় দুই তদন্তকারী সংস্থা ইডি-সিবিআইয়ের সমন্বয় নিয়েও প্রশ্ন তুললেন বিচারপতি।

CBI-ED সমন্বয়ের অভাব

   

সিবিআইকে ইডির সঙ্গে কথা বলে চার্জশিট তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। ভরা এজলাসে তার মন্তব্য, “সিবিআই রিপোর্টে এমন কিছু আছে যা এই মুহূর্তে সবার সামনে আনা সম্ভব নয়! সবটাই নাকের নীচে হয়েছে। বলার অপেক্ষা রাখে না যে পশ্চিমবঙ্গে কোনও ‘ ফুল বা বোকা ‘ আছে! এ রাজ্যের গোয়েন্দারা জানতেন না, এমনটা হতে পারে না!”

‘আর একটা সারদা মামলা হয়ে যাক চাই না ‘

এরপরই বিচারপতি বলেন, এটা অতীতের আরেকটা সারদা মামলা হয়ে যাক সেটা তিনি চান না।
এদিন বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট) প্রধান অশ্বিন শেণভি আদলতে জানান, দ্বিতীয় চার্জশিট খুব শীঘ্রই তৈরী করা হবে। প্রসঙ্গত, প্রাথমিক মামলায় আগে একটি চার্জশিট দেয় সিবিআই।

justice cbi

সিট প্রধানকে প্রশ্ন করে বিচারপতি বলেন, “ওই চার্জশিটে কাদের নাম রয়েছে? আমার কাছে খবর আছে, ইডির সঙ্গে সমন্বয় কম হয়েছে। সেই কারণেই সব অভিযুক্তের নাম চার্জশিটে নেই।”

CBI কে নির্দেশ

এরপরই নির্দেশ দিয়ে বিচারপতি বলেন, “আজই ইডি আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলুন। তাদের কাছ থেকে আরও অনেক তথ্য পাবেন।” সিট প্রধানকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার এদিন নির্দেশ দেন বিচারপতি। পাশাপাশি ইডির সঙ্গে সমন্বয় রেখে সিবিআইকে পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেন তিনি। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী আগামী ২১ ডিসেম্বর।

সম্পর্কিত খবর