‘২০২৪-এ দেশ পাবে এক মহিলা প্রধানমন্ত্রী!’ কে তিনি?, ‘বিখ্যাত’ জ্যোতিষীর দাবিতে তোলপাড় ভারত

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বছর ঘুরলেই লোকসভা নিবার্চন (2024 Lok Sabha Election)। এবারের লোকসভায় আপাতত এনডিএ ভার্সাস ইন্ডিয়া! এই নিয়েই এখন তোলপাড় গোটা দেশে। ২৪ নির্বাচনকে পাখির চোখ করে ভোটের প্রস্তুতি ধাপে ধাপে শুরু করে দিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি। শাসক থেক বিরোধী রণকৌশল স্থির করতে ব্যস্ত সকলে।

সকলেরই নজর প্রধানমন্ত্রীর গোদী। বর্তমানে যেটা মোদীর। বিরোধী জোট ‘ইন্ডিয়া’ জিতলে প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে কে বসবেন তা অবশ্য ঠিক নেই, তবে জেতা তাদের চাইই। ওদিকে গেরুয়া শিবিরের আশা-ভরসা সবই নমো। গত বারের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে ফের ক্ষমতায় আসবে বিজেপি, এমনটাই দাবি পদ্ম শিবিরের।

আসন্ন লোকসভা ভোটে কোন দল কতগুলি সিট পেতে চলেছে সেই নিয়েও কতই না জল্পনা। চলছে সংবাদ মাধ্যমের হাজারো রকমের সমীক্ষা। তবে সেসবকে ব্লার করে ফোকাসে এখন কর্নাটকের এক জ্যোতিষীর ভবিষ্যদ্বাণী। সম্প্রতি কর্নাটকের এক জ্যোতিষীর (Karnataka Astrologer) ভবিষ্যদ্বাণী সামনে এসেছে। আর সেই নিয়েই তোলপাড়।

আরও পড়ুন: একবছর পার! এবার ময়দানে নামছেন মমতা…

ঠিক কি দাবি সেই জ্যোতিষীর? তার দাবি, ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের পর একজন মহিলা প্রধানমন্ত্রী (Female Prime Minister) পাবে দেশ। অর্থাৎ ক্ষমতায় মোদী যে থাকছে না এটা তার কথায় পরিষ্কার। জ্যোতিষীর ওই ভিডিয়োটি সামনে আসার পরই শোরগোল পড়ে গিয়েছে গোটা দেশের রাজনৈতিক মহলে।

প্রসঙ্গত, এই একই জ্যোতিষী নাকি ১০ মে ২০২৩-এ কর্ণাটকে ভোটগ্রহণ শুরুর দিন বড়সড় ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন। আর তা নাকি অক্ষরে অক্ষরে মিলেও গিয়েছে। এখানে বলে রাখি মে মাসে কর্নাটক বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে হারিয়ে মোট ২২৪ টি আসনের মধ্যে ১৩৬ টি আসনে জয় পেয়েছে কংগ্রেস।

আরও পড়ুন: এবার রাজভবন হয়ে যাবে জাদুঘর? মমতার দাবিতে তোলপাড় রাজ্যে

সেই ভবিষ্যদ্বাণী মিলে যাওয়ার পর এবার ২৪ লোকসভা ভোটের আগেও ভবিষ্যদ্বাণী করলেন সেই জ্যোতিষী। সম্প্রতি কয়েকটি মিডিয়ায় তিপ্তুর তালুকের নোনাভিনাকেরে শনি মন্দিরের ধর্মাধিকারী ড. যশবন্তের (‘জি উরুজি’) দাবি, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কোনও দলই নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না।

modi

জ্যোতিষীর কথায় তারার অবস্থানের উপর ভিত্তি করে করা এই ভবিষ্যদ্বাণী অনুসারে, “কোনও দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় একটি জোট সরকার গঠন হবে। আর প্রধানমন্ত্রীর হিসেবে একজন মহিলা নির্বাচিত হবেন।’ শুধু তাই নয়। তিনি আরও জানিয়েছেন, ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে মহা শিবরাত্রি উৎসবের পর ভারতে নেতৃত্বের পরিবর্তন হবে। জ্যোতিষীর মন্তব্য, “উৎসবের আগে নির্বাচন হলে মোদী আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন।”

আর জ্যোতিষীর এই ভবিষ্যদ্বাণীর পরই শুরু হয়েছে নানান কল্পনা-জল্পনা। তবে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ঠিক কে নির্বাচিত হবেন? এই বিষয়ে জ্যোতিষী বলেন, “আমি ফেব্রুয়ারির পর আবার এই বিষয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করব।” তাহলে কি এবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বসতে চলেছে সেই কুর্সিতে? নাকি সর্বভারতীয় কংগ্রেসের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট সনিয়া গান্ধী বা কংগ্রেস নেতা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর দিকে ইঙ্গিত করেছেন জ্যোতিষী? এই সকল প্রশ্নেই তোলপাড় রাজনৈতিক মহল।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর