টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবর্ধমানরাজনীতি

‘আপনিও দল ছাড়বেন না তো!’, প্রশ্নের মুখে পড়ে মেজাজ হারালেন লকেট চট্টোপাধ্যায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক : টালমাটাল পরিস্থিতি রাজ্য বিজেপিতে। দল ছাড়ছেন একের পর এক তাবড় নেতা নেত্রীরা। বিধায়ক থেকে সাংসদ দলত্যাগীদের তালিকায় বাদ নেই কেউই। ফলে তলানিতে এসে ঠেকেছে বিজেপির কর্মী সমর্থকদের মনোবল। কাকে বিশ্বাস করবেন, কাকেই বা সমর্থন করবেন তাও যেন ঠিক বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁরা। এহেন অবস্থায় দল ছাড়া সংক্রান্ত প্রশ্নের মুখে পড়ে মেজাজ হারালেন লকেট চট্টোপাধ্যায়।

শুক্রবার বর্ধমানের একটি সাংগঠনিক বৈঠকে যোগ দিতে যান বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। সেখানেই তিনিও দল ছাড়ার কথা ভাবছেন কি না তা জিজ্ঞেস করেন বিজেপি কর্মীরা। এরপরই মেজাজ হারিয়ে রীতিমত চিৎকার করে ওঠেন লকেট। ধমকে চুপ করিয়েও দেন প্রশ্নকর্তাদের।

এদিন দলীয় নেতা কর্মীর তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, ‘আপনি দলে থাকছেন তো? আপনার নামও নাকি।যাওয়ার তালিকায় রয়েছে বলেই শোনা যাচ্ছে।’ এহেন অপ্রিয় প্রশ্নের মুখে পড়ে নিজের মেজাজ আর ধরে রাখতে পারেননি বিজেপি নেত্রী। প্রথমে খানিক হকচকিয়ে গেলেও পরে কর্মীদের মুখের উপর চিৎকার করে সপাটে বিজেপির সাধারণ সম্পাদিকা জবাব দেন, ‘আপনারা চুপ করুন। কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ করলেই হবে না। আমি যাচ্ছি, এরকম কোনও ইঙ্গিত আপনারা পেয়েছেন নাকি?’

এখানেই শেষ নয়, এদিন সাংগঠনিক বৈঠকে লকেট চট্টোপাধ্যায়কে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের কর্মীদের মনোবল দুর্বল করার জন্য বিভিন্ন ধরনের কথা বলা হচ্ছে। ২০১৯ সালে যাঁরা লোকসভা নির্বাচনে জিতিয়েছিলেন, তাঁরা কেউ দল ছেড়ে যাননি। যাঁরা নিজেদের আখের গোছাতে পার্টিতে এসেছেন, তাঁরা চলে যেতে পারেন। তাঁরা চলে গেলে দলটা ফিল্টার হবে।’

বলাই বাহুল্য, বিজেপি নেত্রীর এহেন বক্তব্যও প্রবোধ দিতে পারেনি কর্মী সমর্থকদের মনে। বরং তাঁর অবস্থান নিয়ে আরও ঘন হয়েছে জল্পনার ধোঁয়াশা। কোনও কোনও বিজেপি কর্মীর সাফ দাবি, ‘অনেক বড় বড় কথা অর্জুন সিংও বলেছিলেন। কী হল শেষ অবধি তা তো দেখাই গেল।’ সব মিলিয়ে সময়টা যে সত্যিই ভালো যাচ্ছে না রাজ্য বিজেপির তা আর নতুন করে বলে দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না বোধ হয়।

Related Articles

Back to top button