আচমকাই মুকুল রায়ের বাড়িতে বিজেপির অর্জুন সিং! বেশ কিছুক্ষণ হল কথা, তাহলে কী…

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে (Lok Sabha Election) ব্যারাকপুর কেন্দ্র থেকে ফের অর্জুন সিংকে (Arjun Singh) দাঁড় করিয়েছে বিজেপি। গতবারের জয়ী সাংসদ ইতিমধ্যেই নির্বাচনী প্রচার শুরু করে দিয়েছেন। শুক্রবারও বেরিয়েছিলেন ভোট প্রচারে। তবে তার মাঝেই হঠাৎ প্রবীণ তৃণমূল নেতা মুকুল রায়ের বাড়িতে পৌঁছে যান তিনি।

আজ মুকুল রায়ের (Mukul Roy) কাঁচরাপাড়ার বাড়িতে উপস্থিত হয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী। মুকুল সেই সময় বাড়িতেই ছিলেন। তৃণমূল (TMC) বিধায়কের পাশাপাশি তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের সঙ্গেও কথা হয়েছে বলে জানান অর্জুন। উল্লেখ্য, মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশু বর্তমানে ব্যারাকপুর পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান।

   

এদিন মুকুল রায়ের কাঁচরাপাড়ার বাড়ি থেকে বেরিয়ে অর্জুন বলেন, ‘মুকুলদা আমার অভিভাবক। উনি ভালো আছেন। আমি ভোটের আশীর্বাদ নিতে এসেছিলাম, আমাদের কথা হল’। মুকুল পুত্র তথা বীজপুরের প্রাক্তন বিধায়ক শুভ্রাংশু প্রসঙ্গে বিজেপি প্রার্থী বলেন, ‘ও আমার ছেলের মতো। ওঁর সঙ্গেও আমার কথা হয়েছে। তবে সেটা নির্বাচন প্রসঙ্গে নয়’।

আরও পড়ুনঃ ‘নিলামে ভাইপোর দু’টো বাড়ি কিনে অনাথ আশ্রম করব’! ভোটের আগে বড় ঘোষণা শুভেন্দুর

নির্বাচনের আবহে তৃণমূল (Trinamool Congress) নেতার বাড়িতে আচমকাই বিজেপি (BJP) প্রার্থীর উপস্থিত হওয়ার খবর সামনে আসতেই এই নিয়ে শুরু হয়ে যায় চর্চা। শুধুই কি ভোটের আশীর্বাদ নিতে গিয়েছিলেন অর্জুন সিং? দেখা দেয় এই প্রশ্নও।

প্রসঙ্গত, অর্জুন সিং যখন তৃণমূলের অংশ ছিলেন সেই সময় তাঁর ‘ঘনিষ্ঠ’ হিসেবেই পরিচিত ছিলেন শুভ্রাংশু। শুধু তাই নয়, সোমনাথ শ্যামের সঙ্গে গোলমালের সময়ও অর্জুনের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। এদিন আবার মুকুল, শুভ্রাংশুর সঙ্গে কথা হয়েছে জানালেও, কী বিষয়ে কথা হয়েছে তা ফাঁস করেননি অর্জুন। ফলত কৌতূহল আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।

mukul roy arjun singh

যদিও এই প্রসঙ্গে অর্জুন সিং বলেন, নিজের লোকসভা কেন্দ্রের সকল সিনিয়র রাজনৈতিক লিডারদের থেকেই তিনি ভোটের আশীর্বাদ নিচ্ছেন। দিন কয়েক আগে ব্যারাকপুর এলাকার সিপিআইএমের প্রবীণ রাজনীতিক তড়িৎবরণ তোপদারের বাড়িতেও উপস্থিত হয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী। সিনিয়র রাজনৈতিক লিডারদের থেকে তাঁর আশীর্বাদ নেওয়ার বিষয়টির মধ্যে রাজনীতি খোঁজা ঠিক বলে মন্তব্য করেন অর্জুন।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর