রাজ্য সরকারের নতুন নিয়ম, মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে পারবে না বহু পরীক্ষার্থী

১৩ বছর না হলে করা যাবে না মাধ্যমিকের (madhyamik) রেজিষ্ট্রেশন। সরকারের নতুন নিয়মের গেড়োয় বছর নষ্ট হতে পারে বহু পরীক্ষার্থীর। মধ্যশিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছে ২০০৭ সালের ৩১ অক্টোবরের পরে জন্ম হলে মাধ্যমিক রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ করতে পারবে না পরীক্ষার্থীরা।

images 13 19

   

প্রতিবছরই রেজিষ্ট্রেশনের সময় দেখা যায় নির্ধারিত বয়সের চেয়ে বেশ কিছুদিন কম আছে কিছু পরীক্ষার্থীর। মাধ্যমিক পরীক্ষার সময় তারা সরকার নির্ধারিত বয়স পার করে ফেলত ফলে পরীক্ষা দিতে কোনো সমস্যা হতো না। কিন্তু এবার নতুন নিয়মে কয়েকদিন বয়স কম থাকলে রেজিষ্ট্রেশন করা যাবে কিনা সেক্ষত্রে সংশয় রয়েছে।

অন্যদিকে, করোনার ধাক্কায় ২৪ মার্চ থেকে বন্ধ স্কুল। যার জেরে পিছোতে পারে উচ্চমাধ্যমিক (higher secondary) । মাধ্যমিকের (madhyamik) সিলেবাস কমে যেতে পারে ৪০ শতাংশ। সরকারি স্তরে ইতিমধ্যেই এই ব্যাপারে আলোচনা শুরু করে দিয়েছে সিলেবাস কমিটি। তাদের চূড়ান্ত রিপোর্ট এর ভিত্তিতেই নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত।

 

শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, অক্টোবরেই এই ব্যাপারে রিপোর্ট জমা দেবে রাজ্যের সিলেবাস কমিটি। তারপর মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সাথে কথা বলে নেওয়া হবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

ইতিমধ্যেই ইউজিসি ঘোষনা করেছে ১ নভেম্বর থেকে শুরু হবে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর দের প্রথম বর্ষের ক্লাস। শিক্ষাবর্ষ কমে হয়ে যাচ্ছে ১০ মাসেরও কম। ইউজিসির ঘোষণাকে মাথায় রেখেই রাজ্য মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের রূপরেখা তৈরি করতে চাইছে।

২০২১ সালের মাধ্যমিক পরিক্ষার্থীদের দুই মাসের বেশী ক্লাস হলেও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের একদিনও ক্লাস হয় নি। এমনকি তারা একাদশ শ্রেনির পরীক্ষাও সম্পূর্ণ দিতে পারে নি।

এই কথা মাথায় রেখে রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে। মনে করা হচ্ছে ২০২১ এর ফেব্রুয়ারিতেই হবে মাধ্যমিক। সেক্ষেত্রে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ সিলেবাস কমতে পারে।

অন্যদিকে উচ্চমাধ্যমিকের ক্ষেত্রে পরীক্ষা পিছোনো হতে পারে বলে খবর। যেহেতু পরের বছর শিক্ষাবর্ষ আগস্টে শুরু হচ্ছে তাই জুন মাস পর্যন্ত পিছিয়ে যেতে পারে উচ্চমাধ্যমিক।

 

 

সম্পর্কিত খবর