লক্ষীর ভাণ্ডার নিয়ে বিরাট কাণ্ড! কার অ্যাকাউন্টে ঢুকছে টাকা? পরিচয় সামনে আসতেই তোলপাড়

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে রাজ্যের জনগণের জন্য একাধিক প্রকল্প চালু হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চালু করা রাজ্যের সর্বাধিক জনপ্রিয় প্রকল্প গুলির মধ্যে একটি লক্ষীর ভান্ডার (Lakshmi Bhandar)। এই প্রকল্প রাজ্যের মহিলাদের জন্য। যার মাধ্যমে প্ৰতি মাসে ৫০০ টাকা করে পান বাংলার মহিলারা। এই প্রকল্প একদিকে যেমন জনপ্রিয় তেমনই অন্যদিকে এই নিয়ে বিরোধীদের অভিযোগ বিস্তর।

   

এবার এই লক্ষ্মীর ভান্ডার নিয়ে চাঞ্চল্যকর ঘটনা সামনে এল। যেই প্রকল্প মহিলাদের জন্য সেই প্রকল্পের টাকা পাচ্ছেন এক পুরুষ। হ্যাঁ শুনে অবাক হলেও এটাই সত্যি। এমনই অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটেছে কোচবিহারের মাথাভাঙ্গায় (Mathabhanga)। যা নিয়ে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

সূত্রের খবর, টাকা ঢুকেছে মনোরঞ্জন দে নামে এক ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে। যদিও এই বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না বলেই মন্তব্য করেছেন। মনোরঞ্জন দে জানান, “অ্যাকাউন্টে টাকা বেশি ঢুকেছে সেটা সত্যি, তবে কিসের টাকা জানি না।”

আরও পড়ুন: মঙ্গলেও চলবে তাণ্ডব! ভাসবে রাজ্য, কাল কোন কোন জেলায় ভারী বৃষ্টির সতর্কতা? জানান হাওয়া অফিস

তবে ইতিমধ্যেই এই বিষয় নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। এই নিয়ে উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছে গেরুয়া শিবির। অন্যদিকে এই বিষয়ে কিছুই জানা নেই বলে দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের।

lakshmi bhandar mamata

মহিলার পরিবর্তে প্রকল্পের টাকা পাচ্ছেন এক পুরুষ। সত্যিই তাজ্জব! যদিও এই ঘটনা প্রথম নয়। এর আগেও মাথাভাঙায় এক পুরুষ লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা ঢোকার ঘটনা সামনে আসে। যা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায়। যদিও বিষয়টি জানাজানি হলে ওই ব্যক্তি প্রকল্পের সব টাকা ফিরিয়ে দেন প্রশাসনকে।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর