‘এবার বিশ্বকাপ চাই’, মোহনবাগানের উন্নয়নের জন্য ৫০ লক্ষ টাকা দিয়ে মন্তব্য মমতার

   

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: শনিবার সন্ধ্যায়, গোয়ায় বেঙ্গালুরু এফসি-কে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর টাইব্রেকারে পরাস্ত করে ভারত সেরা হয়েছে এটিকে মোহনবাগান। আইএসএল জয়ের পর ফুটবল দলটির মালিক সঞ্জীব গোয়েঙ্কা ঘোষণা করে দিয়েছেন মোহনবাগানের সামনে থেকে এটিকে সরে যাচ্ছে এবং পরের বছর থেকে আইএসএলে মোহনবাগান সুপার জায়ান্টস নাম নিয়ে মাঠে নামবে দলটি। এরপর দু একজন গোয়ার ফুটবলের বাদে গোটা দল রবিবার কলকাতায় ফিরে এবং আরপিএসজি অফিসে ট্রফি নিয়ে আনন্দ উদযাপন করা হয়। ঠিক করা হয় পরের দিন অর্থাৎ আজ, সোমবার, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির উপস্থিতিতে ক্লাব তাঁবুতে আনন্দ উদযাপন করা হবে।

সেই কথা মতই আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি উপস্থিত ছিলেন মোহনবাগানকে সংবর্ধনা জানাতে। বাংলার মুখ উজ্জ্বল করার জন্য তিনি সবুজ মেরুন শিবিরকে ধন্যবাদ জানান। এরপর তিনি বলেন, ‘সমর্থকদের মিষ্টি খাওয়ার এবং মোহনবাগান ক্লাব উন্নয়নের জন্যে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা দিলাম। অরূপ কে বোলবো তাড়াতাড়ি টাকাটা পাঠিয়ে দিতে।’

এরপর আরও কিছু চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করেন মমতা। তিনি বলেন, “আমি মনে করি খেলা হয়েছে এবং আবারো খেলা হবে, আবার জিততে হবে। বিশ্বজয় করতে হবে, আমি বিশ্বকাপ নিয়ে আসতে চাই আপনাদের মধ্যে দিয়ে।” যদিও বিশ্বকাপ বলতে ক্লাব বিশ্বকাপ, নাকি চার বছর অন্তর আয়োজিত হওয়া একাধিক দেশ নিয়ে যে ফুটবল বিশ্বকাপ হয় সেই বিশ্বকাপের কথা বলা হচ্ছে, তা পরিষ্কার করে জানাননি তিনি।

mamata with mb

এরপর মোহনবাগান সচিব দেবাশীষ দত্তের হাত থেকে একাধিক ফুটবলে সই করে সেগুলি দর্শকদের মধ্যে বিলিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। সেই সময় মোহনবাগান মাঠে আইএসএল জয়ী বেশিরভাগ খেলোয়াড় এবং কোচের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন মুখ্যমন্ত্রী। একসঙ্গে ফটো তোলা হয়। আই এস এল ট্রফি এবং এটিকে মোহনবাগান গোলরক্ষক বিশাল কাইটের জেতা গোল্ডেন গ্লাভসও উপস্থিত ছিল স্টেজে।

সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের কিছু প্রতিনিধিও। তাদের তরফ থেকে স্পর্শী ক্লাবকে সম্মান জানিয়ে এবং এই সাফল্য অর্জনের জন্য মিষ্টি তুলে দেওয়া হয় এই পক্ষের হাতে। সৌহার্দের এই নজর দেখে হাততালি দিতে দেখা যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকেও।

Avatar
Reetabrata Deb

সম্পর্কিত খবর