টাইমলাইনবিনোদন

পারিশ্রমিকটাই সবাই দেখেন, অমানুষিক পরিশ্রমটা দেখেন না! পুজোর ফিতে কাটা নিয়ে ট্রোলের জবাব মানালির

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গ্ল্যামার জগতের অভিনেতা অভিনেত্রী (Actress) মানেই আমজনতার কাছে আগ্রহের বিষয়। শুধু পর্দায় তাঁদের দেখে আশ মেটে না। তাঁদের শোয়ের দর্শকাসনে নামে মানুষের ঢল। পুজো (Durgapuja) উদ্বোধন করা নিয়েও থাকে বাড়তি উত্তেজনা। বড়পর্দার তুলনায় এখন ছোটপর্দার অভিনেতা অভিনেত্রীদের দিয়ে পুজোর উদ্বোধন করানোটা বেশি ট্রেন্ডে রয়েছে।

কিছুদিন আগে এমনি কয়েকজন জনপ্রিয় ছোটপর্দার অভিনেতা অভিনেত্রীদের পুজোর ফিতে কাটার ‘আনুমানিক’ পারিশ্রমিক নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল এক নামী সংবাদ মাধ্যমে। সেখানে নাম ছিল শন বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌমিতৃষা কুণ্ডু, গৌরব রায়চৌধুরী, মানালি দে (Manali Dey) এর মতো জনপ্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রীদের। সঙ্গে লেখা ছিল তাঁদের আনুমানিক পারিশ্রমিকও।


বিষয়টা নিয়ে আগেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন সৌমিতৃষা, গৌরবরা। তথ্যের স্বচ্ছ্বতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তাঁরা। এবার মুখ খুললেন অভিনেত্রী মানালি মনীষা দে আর অন্যদের মতো তিনিও সুর চড়িয়েছেন ভাইরাল হওয়া তথ্যগুলির বিরুদ্ধেই।
সংবাদ মাধ্যমকে মানালি স্পষ্ট জানান, তথ্যগুলি শেয়ার করার আগে তাঁকে কেউ জিজ্ঞাসা করেনি। তাঁর রোজগারের অঙ্কটা তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার। অথচ তাঁর ব্যাপারে লেখার আগে তাঁকেই জিজ্ঞাসা করা হল না। শুধু ‘আনুমানিক’ বসিয়ে দিলেই দায় ঝেড়ে ফেলা যায় না, কটাক্ষ মানালির।

সেই সঙ্গে অভিনেত্রী আরো বলেন, সিরিয়াল, সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি স্টেজ শোও করতে হয় তাঁদের। পুজোর সময়েও অষ্টমী, দশমীতে শো আছে তাঁর। সিরিয়ালের টানা শুটিং শেষ করেই এই শো গুলিতে ছুটতে হয় তাঁদের। ফিরতে ফিরতে ভোররাত হয়ে যায়। ক্লান্ত দেহেই আবার পরের দিন শুটিংয়ে যেতে হয়। মানালি বলেন, যখন মানুষ পারিশ্রমিকের অঙ্ক নিয়ে সমালোচনা করেন, তখন তারা পরিশ্রমের কথাটা বেমালুম ভুলে যান। তবে এসব বিতর্ককে সঙ্গী করেই এখন পথ চলতে শিখে গিয়েছেন মানালি।

Related Articles