fbpx
টাইমলাইনভারত

জাতীয় সঙ্গীত গাইয়ে মার খাওয়া মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মাসুম আখতার পেলেন পদ্মশ্রী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ  শিক্ষা ও সাহিত্যে এবার পদ্মশ্রী পুরস্কার পাচ্ছেন যাদবপুর কাটজুনগর স্বর্ণময়ী স্কুলের প্রধান শিক্ষক কাজী মাসুম আখতার। দেশের প্রতি দায়বদ্ধতা তার চিরকালের। জাতীয় সংগীত গাওয়াতে গিয়ে পরেছেন মৌলবাদীদের রোষ নজরেও। বাল্য বিবাহ রোধ থেকে তিন তালাক বার বার তার কন্ঠ গর্জে উঠেছে ধর্মের উর্দ্ধে মানবতার পক্ষে।

২০১৫র  ২৬শে মার্চ, মেটিয়াবুরুজের এক মাদ্রাসায় প্রধান শিক্ষক হিসাবে ছিলেন তিনি। ছাত্র ছাত্রীদের ‘জন গন মন’ গায়িয়েছিলেন। আর তার জন্যই লোহার রড দিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। তিন তালাক নামক মুসলিম দের অমানবিক প্রথার বিরুদ্ধেও গর্জে ওঠেন এই শিক্ষক। জোগাড় করেছিলেন তিন তালাকের বিরুদ্ধে এক লক্ষ মানুষের স্বাক্ষর। ছুটেছিলেন প্রধান মন্ত্রী , রাষ্ট্রপতি থেকে সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত।

বাল্য বিবাহের বিরুদ্ধেও তিনি বার বার বলেছেন। বার বার তার কলম গর্জে উঠেছে সমাজের কলঙ্কের বিরুদ্ধে। ধর্মের ওপরেও যে মানবতা ও দেশের স্থান তা তিনি আজীবন পালন করে এসেছেন। এই সম্মান পাওয়ায় উচ্ছ্বসিত ষীক্ষোক মাসুম আখতার। তিনি বলেন, “ এই সম্মান আমাকে দিল আমার দেশ। যতই হুমকি, হামলা হোক দায়িত্ব পালন থেকে এক মুহূর্ত সরব না।”

আনন্দে মেতেছেন তার ছাত্র ছাত্রী থেকে সহকর্মীরাও। তাদের কাছে তিনি আদর্শ মানুষ। শিক্ষকের কাজই জ্ঞানের আলো পৌঁছে দেওয়া সমাজের কাছে। সেই জ্ঞানের আলো পৌঁছে দিতেই অনেক বাঁধার সম্মুখীন হয়েও তিনি নত হননি। এই শিক্ষককে এবার কুর্নিশ জানালো দেশ।

Back to top button
Close
Close