প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে দিশেহারা! ‘আমরা আর কী করতে পারি!’, UCC ইস্যুতে হতাশ সুর মাদানির গলায়

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ঝরে পড়ছে একরাশ হতাশা। দুদিন আগে পর্যন্তও তাঁর গলায় শোনা গিয়েছিল প্রতিবাদের তীব্র কন্ঠস্বর। কিন্তু আজ যেন কার্যত হার করে নিলেন। তিনি হলেন জমিয়তে উলামা-ই-হিন্দের সভাপতি ও দারুল উলুম দেওবন্দের ভাইস চ্যান্সেলর মাওলানা আরশাদ মাদানি (Maulana Arshad Madani)। অভিন্ন দেওয়ানি বিধি নিয়ে তাঁর প্রতিরোধ এক প্রকার ভেঙেই পড়েছে।

   

এদিন আরশাদ মাদানি হতাশ কণ্ঠে বলেন, ‘আমরা আর কী করতে পারি? প্রধানমন্ত্রী মোদি প্রকাশ্যেই বলেছেন মুসলিমদের ধর্মীয় অধিকারকে হনন করা হবে।’ বস্তুত কিছুদিন আগেই ইউনিফর্ম সিভিল কোড (Uniform Civil Code) নিয়ে আইন কমিশনের নতুন পদক্ষেপের বিরোধিতা করলেন মুসলিম আলেম ও নেতারা। মাদানি বলেন, ‘গত ১৪০০ বছর ধরে মুসলিমরা তাদের ব্যক্তিগত আইন নিয়ে ভারতে বসবাস করে আসছে। এখন ইউসিসি আরোপের এই আগ্রহ কেন?’

মাদানি এদিন বলেন, ‘আইন সভা যাই সিদ্ধান্ত নিক তা আমাদের বিরুদ্ধেই যাবে। আমরা হাজার অভিযোগ জানাই, অনুরোধ করি, প্রতিনিধি দল পাঠাই, কোনও লাভ হবে না। প্রধানমন্ত্রী নিজেই সওয়াল করছেন। এর পর আইন সভা আর আমাদের কথা শুনবে না।’

madani

সারা ভারতের মুসলিমদের উদ্দেশ্যে মাদানি বলেন, ‘আমি মুসলমানদের অনুরোধ করব তাঁরা যেন রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ না করেন। ১৯৯২ সালের আমাদের মসজিদ চলে গেছে। কর সেবকরা ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। আমরা কী করতে পেরেছি? সেই ধ্বংসস্তুপে আজ রাম মন্দির নির্মাণ হয়েছে আমরা কি আটকাতে পেরেছি? সমস্ত মুসলমানরা যেন আল্লাহর উপর ভরসা রাখে।

এর আগে মওলানা আরশাদ মাদানী বলেছিলেন, ‘প্রায় ৯৯ শতাংশ আইন একই রকম, তবে কিছু ব্যক্তিগত আইন রয়েছে যা বিভিন্ন সম্প্রদায়ের জন্য আলাদা হওয়ায় সেগুলি অক্ষত থাকা উচিত। জমিয়তে উলামা-ই-হিন্দের আমরা অন্যান্য সম্প্রদায়ের ব্যক্তিগত আইনকে সম্মান করি, তাই আমরা চাই সবাই আমাদের ব্যক্তিগত আইনকে সম্মান করুক। আমি মুসলিমদের মধ্যে ইউসিসি সম্পর্কে মতামত সংগ্রহ করব এবং এটি আরোপের বিরোধিতা করব।’

এছাড়া বিশিষ্ট মুসলিম আলেম এবং বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের নেতারা বলেন যে ভারতের মতো একটি দেশে ইউনিফর্ম সিভিল কোড (ইউসিসি) অবাস্তব, যেখানে বেশ কয়েকটি ধর্মীয় সংখ্যালঘু রয়েছে, প্রত্যেকের নিজস্ব জীবনযাত্রা রয়েছে। মুসলিম সমাজের একাংশের দাবি ইউসিসি কেবল একটি সম্প্রদায়কে প্রভাবিত করবে না বরং সবাইকে প্রভাবিত করবে। তবে গতকাল প্রদানমন্ত্রীর ভাষণের পর সমস্ত প্রতিরোধই একরকম দিশেহারা।

Avatar
Sudipto

সম্পর্কিত খবর