টাইমলাইন

মাছ চাষীদের জন্য সুখবর! ‘মৎস্য সম্পদ উন্নয়নে ২০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে মোদি সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ আত্মনির্ভরতার পথে আরো এক কদম এগিয়ে গেল মোদি সরকার (modi government) । মাছ চাষে দেশকে এক কদম এগিয়ে দিতে Matsya Sampada Yojana (PMMSY) তে আগামী ৫ অর্থবর্ষে ২০ হাজার ৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। পাশাপাশি, মাছ চাষীদের জন্য আজ একটি নতুন অ্যাপ লঞ্চ করলেন নরেন্দ্র মোদি।

এখনো পর্যন্ত এত বড় বিনিয়োগ দেশের মৎস্য চাষে হয়নি। মাছ চাষীদের উৎসাহ দিতেই এই বিশাল বিনিয়োগ বলে জানিয়েছে মোদি সরকার। কৃষি ও পশুপালনে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যাবহার করা হবে বলেও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার। চাষীদের জন্য এখনো কোনো অ্যাপ নেই দেশে। এই নতুন ই-গোপাল অ্যাপের মাধ্যমে চাষ সম্পর্কিত তথ্যাদি ছাড়াও কীটনাশক, সার, বীজ এমনকি পন্য বিক্রির সুবিধাও পাবে দেশের কৃষকরা।

গতকাল, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরসারি কথা বলেছেন ফুটপাথের ছোট ব্যাবসায়ীদের সাথে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমের ব্যাবসায়ীদের সাথে কথা বলবেন তিনি। একই সময়ে ১ লাখ ব্যাবসায়ী তাদের ব্যাংক একাউন্টে পেয়ে গেছেন ১০ হাজার টাকা করে। প্রধানমন্ত্রী স্বনিধি যোজনার আওতায় এই টাকা পেয়েছেন ব্যাবসায়ীরা।

করোনা কালে লোকসানের মুখে পড়া দেশের প্রায় ৫০ লাখ হকারকে এই প্রকল্পে সহায়তা করতে চলেছে মোদি সরকার। আত্মনির্ভর ভারত আর্থিক প্যাকেজের কথা ঘোষনা করেছিলেন প্রধান মন্ত্রী  নরেন্দ্র মোদি । অর্থ মন্ত্রী নির্মলা সিতারমন সেই প্যাকেজের দ্বিতীয় পর্ব ঘোষনা করেন। দ্বিতীয় পর্বে ফুটপাথ ব্যবসায়ীদের জন্য ৫০০০ কোটি টাকা ঋণ বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পর সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সাধারণ দিন আনা মানুষ গুলি। এদের মধ্যেই পড়ে ফুটপাথ ব্যবসায়ীরা। শহরের ব্যস্ত ফুটপাথ গুলিতে নিজেদের পসরা সাজিয়ে বসেন তারা, বেশীরভাগই নিম্ন মধ্যবিত্ত । লকডাউনের কারনে দোকান বন্ধ হওয়ায় মারাত্মক আর্থিক ক্ষতি হয়েছে তাদের। এবার দেশের ৫০ লাখ ফুটপাথ ব্যবসায়ীদের জন্য ১০ হাজার টাকা করে লোনের ব্যবস্থা করেছে সরকার। এছাড়াও ডিজিটাল পেমেন্টেও উৎসাহী করা হবে বিক্রেতাদের

Related Articles