পিছিয়ে পড়েও দুরন্ত জয়! AFC কাপের পরের রাউন্ডে পৌঁছে গেল মোহনবাগান

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ কলকাতা ডার্বি হারের ধাক্কা কাটিয়ে এবং কলকাতা লিগে হারের স্মৃতি ভুলিয়ে অবশেষে ঘুরে দাঁড়ালো মোহনবাগান সুপার জায়ান্টস (MBSG)। আজকে যুবভারতীতে যখন বাংলাদেশের প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিলেন কামিন্স, সাদিকুরা, তখন সমর্থকরা যথেষ্ট চিন্তিত ছিলেন দলের পারফরম্যান্স কেমন হবে সেই নিয়ে। কিন্তু সেই চিন্তা কাটিয়ে এএফসি কাপের প্রিলিমিনারি রাউন্ডের ম্যাচে আবাহনী লিমিটেড-কে ৩-১ ফলে পরাস্ত করলো সবুজ মেরুণ শিবির।

কিন্তু সমর্থকদের আতঙ্ক বাড়িয়ে ম্যাচের ১৭ মিনিটের মাথায় কর্নওয়ালিসের গোলে লিড নিয়েছিল বাংলাদেশের দলটি। কিন্তু সেই লিড দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। এরপর ম্যাচের ৩৭ মিনিটের মাথায় লিস্টন কোলাসোকে ১৮ গজ বক্সে ফাউল করে বসেন সুশান্ত ত্রিপুরা। স্পট কিক থেকে মোহনবাগানকে এগিয়ে দেন কামিন্স। প্রথমার্ধে শেষ সমতা বজায় থাকে।

কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে দুর্দান্তভাবে ম্যাচে ফেরে মোহনবাগান। এই ম্যাচের ৫৮ মিনিটের মাথায় হুগো বুমোর ক্রস ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজের দলের জালে বল জড়িয়ে দেন মিলাদ। সেই ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই ৬০ মিনিট নাগাদ তৃতীয় গোল করেন সবুজ মেরুণ শিবিরের নবাগত ফরোয়ার্ড সাদিকু।

এরপর আরও কিছু সুযোগ নষ্ট করে মোহনবাগান ফুটবলাররা। তেমনটা না হলে ব্যবধান আরো বাড়তে পারতো। কিন্তু গত বছর দুর্দান্ত ফর্মে থাকা গোলরক্ষক বিশাল কায়েথ এই মরশুমে একেবারে নিজের আগের রূপের ছায়া হয়ে গিয়েছেন। ব্যাপারটা বাকি মরশুম জুড়ে চিন্তায় রাখবে কোচ জুয়ান ফেরান্দোকে।

আরও পড়ুন: ফাইনালের আগে হবে না ডার্বি! ডুরান্ডের কোয়ার্টার ফাইনালে কঠিন প্রতিপক্ষর সামনে ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান

এরই মধ্যে আজও ঘোষণা হয়েছে ডুরান্ড কাপের কোয়ার্টার ফাইনালের সূচি। ২৭শে আগস্ট যুবভারতী স্টেডিয়ামে শক্তিশালী মুম্বাই সিটি এফসির মুখোমুখি হবে সবুজ মেরুণ শিবির। সেই ম্যাচ একেবারেই সহজ হবে না সেটা সমর্থকরা এবং ফুটবলেরা সকলেই জানেন। কিন্তু লড়াই করতে যে সবুজ মেরুণ শিবির প্রস্তুত, তা আজ স্পষ্ট হয়ে গেল।