আগামী পাঁচ বছর বেতন ছাড়াই রিলায়েন্সে কাজ করবেন মুকেশ আম্বানি! তবে পাবেন এই বিশেষ সুবিধাগুলি

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : এখনই শেষ হচ্ছেনা মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) সফর। আরও ৫ বছরের জন্য রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ (Reliance Industries) লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর থাকবেন মুকেশ আম্বানি! ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে শেয়ারহোল্ডারদের কাছে অনুমতি চেয়েছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। সবচেয়ে মজার বিষয় হল, তিনি ঠিক করেছেন, এই সময়কালে তিনি কোন বেতন নেবেননা।

জানা যাচ্ছে, এই আবেদন গ্রান্টেড হলে আগামী ২০২৯ সাল পর্যন্ত রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদ বরাদ্দ হবে মুকেশ আম্বানির জন্য। উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে মুকেশের বয়স প্রায় ৬৬ বছর। তিনি যদি ২০২৯ সাল পর্যন্ত রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে থাকেন তাহলে ততদিনে তার বয়স ৭০ পেরিয়ে যাবে।

তবে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নিয়ম অনুসারে, সংস্থার চিফ এক্সিকিউটিভের বয়স ৭০-র বেশি হতে পারেনা। যদি বয়স ৭০ পেরিয়ে যায় সেক্ষেত্রে শেয়ারহোল্ডারদের দিয়ে বিশেষ প্রস্তাবনা পাশ করাতে হয়। ইতিমধ্যেই এই বিশেষ প্রস্তাবনা উত্থাপন করেছে সংস্থাটি। সেই প্রস্তাব গ্রান্টেড হলেই ২০২৯ সাল রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের শীর্ষপদে থাকতে পারবেন আম্বানি।

সূত্রের খবর, এই বিশেষ প্রক্রিয়া কার্যকর হবার ২০২৪ সালের ১৯ এপ্রিল থেকে। কারণ তার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে আগামী ২০২৪ সালের ১৮ এপ্রিল। এই প্রস্তাবনায় আরও বলা হয়েছে, ২০২৪ সালের ১৯ এপ্রিল থেকে ২০০৯ সালের ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত প্রস্তাবিত কার্যকালে তাকে কোনও বেতন বা কোনও লভ্যাংশ-ভিত্তিক কমিশন দেওয়া হবে না।

পাশাপাশি খবর, আম্বানি যখন সংস্থার কাজে কোথাও যাবে তখন তার স্ত্রী ও সহকারী-সহ আম্বানির যাতায়াত, খাওয়া-দাওয়ার খরচের দায়িত্ব নেবে সংস্থা। পাশাপাশি ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত গাড়ি ও বাড়িতে ফোনের যে খরচ হবে, সেটাও দেখবে সংস্থা। এখানেই শেষ নয়, আম্বানি ও তার পরিবারের নিরাপত্তার কারণে যে খরচ হবে, সেটাও রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ বহন করবে বলে জানানো হয়েছে।

images (3)

জানিয়ে রাখি, এটাই প্রথম নয় যখন আম্বানি বেতন নিচ্ছেন না। এর আগেও করোনা মহামারী কালে তিন বছর (২০২০-২১, ২০২১-২২, ২০২২-২৩) বেতন নেননি। সেইসময় আম্বানি জানিয়েছিলেন, যতদিন না রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ নিজের ক্ষমতা অনুযায়ী আয় করতে পারছে, ততদিন তিনি কোনও বেতন নেবেন না। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ফোর্বসের রিয়েল টাইম ট্র্যাকার বলছে, বর্তমানে ৮৯ বিলিয়ন ডলার সম্পতির মালিক হলেন মুকেশ আম্বানি। এবং বিশ্বের ১৪ তম ধনী ব্যক্তি তিনি। উল্লেখ্য, ২০০৮-২০০৯ অর্থবর্ষ থেকে নিজের বার্ষিক বেতন ১৫ কোটি টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছিলেন।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর