একটা বা দুটো নয়, পাওয়া যাবে এত্তগুলো সামগ্রী! রেশন কার্ড নিয়ে বড়সড় আপডেট সরকারের

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রেশন ব্যবস্থার সাথে ভারতের কোটি কোটি মানুষ যুক্ত। বহু মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবার নির্ভর করে সরকারি রেশনের উপর। বিভিন্ন রাজ্য সরকার ক্যাটাগরি অনুযায়ী অপেক্ষাকৃত কম দামে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস রেশন কার্ড হোল্ডারদের সরবরাহ করে থাকে। মূলত রেশন দোকান থেকে কম দামে চাল, ডাল, চিনি ইত্যাদি পাওয়া যায়। কিন্তু ভারতের এই রাজ্য এবার আমূল পরিবর্তন আনতে চলেছে রেশন ব্যবস্থায়।

উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) বাসিন্দাদের জন্য বড় আপডেট রয়েছে রেশন সামগ্রীর ব্যাপারে। মশলা, বিউটি প্রোডাক্ট সহ ৩৫ রকমের পণ্য এবার থেকে পাওয়া যাবে রেশন দোকানে। উত্তর প্রদেশের রেশন দোকানগুলিতে এবার থেকে মিলবে গুড়, ঘি, লবণাক্ত, প্যাকড শুকনো ফল, প্যাকড মিষ্টি, দুধের গুঁড়া, বাচ্চাদের জামাকাপড়, রাজমা, সয়াবিন, ক্রিম, ধূপ, চিরুনি, গ্লাস, ঝাড়ু, পোচা, লক, রেইনকোটের মতো সামগ্রীও।

সে রাজ্যের সরকার জানিয়েছে ওয়াল হ্যাঙ্গার, ডিটারজেন্ট পাউডার, ওয়াশিং সাবান, ইলেকট্রনিক পণ্য, দেওয়াল ঘড়ি, দেশলাই, নাইলন ও পাটের দড়ি, জলের জন্য ব্যবহৃত প্লাস্টিকের পাইপ, প্লাস্টিকের বালতি, মগ ও চালনীও বিক্রি হবে রেশন দোকানে। এছাড়াও হ্যান্ডওয়াশ, বাথরুম ক্লিনার এবং বেবি কেয়ার প্রোডাক্ট যেমন ডায়পার, বেবি সাবান, ম্যাসেজ অয়েল, ওয়াইপস এবং বডি লোশনও মিলবে ফেয়ার প্রাইস শপে।

ration

বুধবার এই সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা জারি করেছে সে রাজ্যের খাদ্য দপ্তর। রেশনে একাধিক পণ্য রাখার মূল উদ্দেশ্যই হল রেশন দোকানগুলির আয় বৃদ্ধি করা। এছাড়াও উত্তর প্রদেশ সরকার জানিয়েছে আগামী দিনে এমন মডেল রেশন দোকান তৈরি করা হবে যেখানে দৈনন্দিন ব্যবহারিক জিনিসপত্রের কেনা-বেচার পাশাপাশি অন্যান্য কাজও করা সম্ভব হবে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর