টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বাংলাকে ৩৫০০ কোটি টাকা জরিমানা! ব্যাপক চাপে রাজ্য

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ব্যাপক হারে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাজ্যের পরিবেশ। যত পরিমাণ তরল ও কঠিন বর্জ্য তৈরী হয় তার ঠিক মত ব্যবস্থাপনা না হওয়ায় বৃদ্ধি পাচ্ছে পরিবেশ দূষণ।এই অভিযোগে ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল (এনজিটি) ৩৫০০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিল পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে ।

রাজ্য বাজেটে নগরোন্নয়ন এবং পুর বিষয়ক কাজে ২০২২-২৩ অর্থবর্ষে ১২,৮১৮.৯৯ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল ক্ষোভ প্রকাশ করে জানিয়েছে,পশ্চিমবঙ্গ সরকার বর্জ্য নিষ্কাশনের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখে না। ট্রাইব্যুনাল জানিয়েছে, সঠিকভাবে বর্জ্যের ব্যবস্থপনা না হওয়ায় ক্ষতি হচ্ছে পরিবেশের। এর ফলে জরিমানা দিতে হবে রাজ্য সরকারকে।

বিচারপতি আদর্শ কুমার গোয়েলের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ গত ১ সেপ্টেম্বর এই রায় দেন। বিচারপতি জানিয়েছেন, এনজিটি আইনের ১৫ নম্বর ধারায় পরিবেশ দূষণ রোধে এই রকম জরিমানার নির্দেশ উল্লেখ্য আছে। তাই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে।

পাশাপাশি এই বেঞ্চ মন্তব্য করেছে, রাজ্য সরকারের দায়িত্ব প্রত্যেকটি রাজ্যবাসীকে দূষণমুক্ত পরিবেশে বসবাসের সুযোগ করে দেওয়া। এনিজিটি জানিয়েছে, ২,৭৫৮০ লক্ষ লিটার বর্জ্য প্রতিদিন উৎপন্ন হয় রাজ্যের শহরে। কিন্তু রাজ্যে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ক্ষমতা ১৫০৫৮.৫ লক্ষ লিটার।

অন্যদিকে সেখানে নিয়মিত ব্যবস্থাপনা হয় ১,২৬৮ লক্ষ লিটার। অর্থাৎ লক্ষ লক্ষ বর্জ্য পদার্থের কোন ব্যবস্থাপনাই হয় না। এই বিশাল পরিমাণ বর্জ্য পদার্থের সঠিক ব্যবস্থা না করতে পারার জন্য ক্ষতিপূরণ করা হয়েছে রাজ্যকে। পাশাপাশি এও জানানো হয়েছে সঠিক সময় মত ক্ষতিপূরণ না দিলে ভবিষ্যতে তার পরিমাণ আরো বাড়বে।

Related Articles