সেনা বনাম জঙ্গি! পাকিস্তানে চরম সঙ্কট, সন্ত্রাসীদের অত্যাচারে ইসলামাবাদে বিপদের গন্ধ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: পাকিস্তানের সেনাবাহিনীতে (Pakistan Army) ঘোর সঙ্কট! এমনিতেই ওই দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল নয়, আর তারই মধ্যে এবার সেনাবাহিনীতে নতুন করে সঙ্কট দেখা গিয়েছে।‌ যার জেরে চিন্তায় ইসলামাবাদ (Islamabad)।

সন্ত্রাসবাদ বিরোধী অবস্থান থেকে ২০১৪ সালে একটি নতুন অভিযানের কথা ঘোষণা করেছিল পাকিস্তানের সেনা। কিন্তু সেখানেই সন্ত্রাসীদের (Terrorist) বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে গিয়ে পাল্টা পাটকেল ধেয়ে আসছে তাদের দিকেও। আর এর জন্যই অনেকে মনে করছে যে পাকিস্তানের সেনা এই মুহূর্তে যে সঙ্কটের মুখোমুখি হয়েছে ২০১৪ সালের পর থেকে সেই অবস্থা আর কখনও হয়নি।

   

সম্প্রতি, একাধিক জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানে (Pakistan)। পাঞ্জাব প্রদেশের মিয়ানওয়ালিতে পাক বায়ুসেনার ঘাঁটিতে জঙ্গি হামলা হয়। কিছুদিন আগে আত্মঘাতী জঙ্গিরা রাতের অন্ধকারে সেনাঘাঁটিতে ঢুকে সেনাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। সেনাবাহিনীর উপর এই ধরনের সন্ত্রাসবাদী হামলায় সিঁদুরে মেঘ দেখছেন অনেকেই। বলা হচ্ছে, পাক সেনার গলায় এখন মূলত তিনটে কাঁটা বেঁধে রয়েছে। প্রথমটি তো এই সেনাদের উপর হামলা।

imran khan

বালুচিস্তান প্রদেশে (Balochistan) বাড়তে থাকা সমস্যা পাক সেনাবাহিনীর দ্বিতীয় কাঁটা। এই এলাকায় সেনা বিরোধী বিদ্রোহ দমন করা বাহিনীর অন্যতম চ্যালেঞ্জ। জঙ্গিগোষ্ঠী তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তানের সঙ্গে পাক সেনার একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল। ২০২২ সালে সেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়। এরপর থেকেই সেখানে সেনার হামলার পরিমাণ বেড়েছে। আরও একটি কাঁটা হল পাকিস্তানের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি। গ্রেফতার হয়েছেন ইমরান খান (Imran Khan)। সেটি দেশের সাধারণ মানুষ ভালো চোখে দেখেননি। হেফাজতে থাকাকালীন পাক সেনার বিরুদ্ধে ইমরান শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ তুলেছেন।

Avatar
Monojit

সম্পর্কিত খবর