টাইমলাইনভারত

৬ দিনে দাম বাড়ল ৩ টাকার বেশী, কোথায় গিয়ে ঠেকবে পেট্রল ডিজেলের দাম? মাথায় হাত মধ্যবিত্তের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ আনলকডাউন এর প্রথম পর্বেই পেট্রল ডিজেল ( petrol diesel) এর দাম বাড়বে এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন বিশেষজ্ঞ মহল। সেই আশঙ্কা সত্যি করে আজ আরো মহার্ঘ হল পেট্রল ডিজেল। দেশের সরকারি তেল বিপণন সংস্থাগুলি (এইচপিসিএল, বিপিসিএল, আইওসি) আবারও পেট্রল-ডিজেলের দাম পর্যালোচনা শুরু করেছে। যে কারণে প্রতিদিন দাম পরিবর্তন হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার, দিল্লিতে পেট্রোলের দাম ৬০ পয়সা বেড়ে প্রতি লিটারে ৭৪ টাকায় দাঁড়িয়েছিল। পাশাপাশি, ডিজেলের দামও ৬০ পয়সা বাড়ে। আজ শুক্রবার, পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে 57 পয়সা বেড়েছে, ডিজেলের দাম বেড়েছে 59 পয়সা। সব মিলিয়ে পেট্রোলের দাম ছয় দিনে ৩.৩১ টাকা, ডিজেল ৩.৪২ টাকা বেড়েছে। জানা যাচ্ছে, আরো ৫ টাকা বাড়তে পারে পেট্রল ডিজেল এর দাম।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, তেল সংস্থাগুলি প্রতিদিন পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম পর্যালোচনা শুরু করবে। আবগারি শুল্ক বৃদ্ধির কারণে সংস্থাগুলি তাদের লাভ-ক্ষতি পর্যালোচনা করবে। এছাড়াও অপরিশোধিত তেলের দাম বাড়ার ক্ষেত্রে সংস্থাগুলিও তেলের দাম বাড়িয়ে দিতে পারে।

ইতিমধ্যেই তেলের ওপর অতিরিক্ত অন্তঃশুক্ল বসিয়েছে মোদি সরকার । পেট্রোল‌ে লিটার প্রতি ১০ টাকা ও ডিজেলে লিটার প্রতি ১৩ টাকা করে অন্তঃশুল্ক বসানো হল। যার ফলে বিশ্ব বাজারে তলানিতে ঠেকা তেলের দামের কোনো সুবিধা পাবেন না দেশবাসী।

ভারতে পেট্রল ডিজেল এর বার্ষিক চাহিদা ২.৪ শতাংশ বাড়ার সম্ভাবনা ছিল । কিন্তু করোনার প্রকোপে তা ৫.৬ শতাংশ কমতে চলেছে বলেই জানানো হয়েছে। পরিবহন ও কৃষিক্ষেত্রে ভারতে এবছরের ডিজেলের চাহিদা গত বছরের তুলনায় ৫৫.৬ শতাংশ কম। অন্যদিকে পেট্রলের বিক্রি গত বছরের তুলনায় ৬০.৬ শতাংশ কমতে পারে। এ বছর ০.৯৭ মিলিয়ন টন পেট্রল বিক্রি হতে পারে।অন্যদিকে বেড়েছে রান্নার গ্যাসের চাহিদা । ফলে বিক্রিও বেড়েছে। রান্নার গ্যাসের বিক্রি এখনও পর্যন্ত ১২.১ শতাংশ বেড়েছে।

Back to top button