মোদীর বঙ্গ সফরেই তৃণমূল ছেড়ে BJP-তে যাচ্ছেন মেদিনীপুরের এই হেভিওয়েট সাংসদ? তুঙ্গে জল্পনা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ একদিকে সন্দেশখালি ইস্যু, অন্যদিকে দোরগোড়ায় লোকসভা ভোট (Loksabha Vote)। এই আবহেই বাংলায় পা রাখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi)। অনেকদিন থেকেই জল্পনা চলছিল, মোদীর সভামঞ্চে কি হাজির হতে পারেন তমলুকের তৃণমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী (Dibyendu Adhikari)? এই নিয়ে এবার মুখ খুললেন জোড়াফুল সাংসদ নিজেই।

   

প্রায় ২ বছর হল দলের সঙ্গে সম্পর্ক নেই বললেই চলে। শোনা যায় তৃণমূল (Trinamool Congress) নয় বরং গেরুয়া শিবিরের ঘনিষ্ঠ তমলুকের তৃণমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। এবার লোকসভার আগে সেই সাংসদই কী নাম লেখাতে চলছেন বিজেপিতে (BJP)? এই নিয়েই এখন তীব্র জল্পনা। এরই মধ্যে সেই জল্পনায় আরও খানিকটা ঘি ঢাললেন দিব্যেন্দু স্বয়ং।

সোমবার রেলের এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দিব্যেন্দু অধিকারী বলেন, ‘আগামী মাসেই প্রধানমন্ত্রী বাংলায় আসছেন। হয়ত তার সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ ঘটবে।’ শুধু তাই নয়, প্রধানমন্ত্রী থেকে রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের ভূয়সি প্রশংসাও একাধিকবার শোনা গেল দিব্যেন্দুর মুখ থেকে। তবে সাসপেন্স এখনও জিয়িয়ে রাখতে চান তমলুকের সাংসদ।

দিব্যেন্দুর বক্তব্য, ‘প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমার সভাতে দেখা নাও হতে পারে। অন্য কোথাও দেখা হতে পারে।’ তাহলে কি লোকসভার আগে বিজেপিতে যোগদানের ডিল কনফার্ম? যদিও এই নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে কোনও মন্তব্য করতে চাননি তৃণমূলের দিব্যেন্দু। সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি শুধু বললেন, ‘আমি এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কিছু পাইনি।’

এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি বঙ্গ-সফরে আসার কথা ছিল দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। এরপর ২৯ জানুয়ারি পূর্ব মেদিনীপুরের মেচেদায় কর্মীদের সাথে বৈঠক করার কথাও ছিল তার। সেই সময়ও জেলা জুড়ে খবর ছড়িয়ে পড়ে যে শাহী সভাতেই পদ্ম হাতে তুলে নেবেন দিব্যেন্দু। যদিও তা আর হয়নি। কারণ শেষ মুহূর্তে শাহের সফর বাতিল হয়ে যায়।

Dibyendu Adhikari

আরও পড়ুন: হাতে মাত্র কয়েকদিন! বিরাট ঘোষণা করতে চলেছে সরকার, কাদের খুলবে কপাল? দেখুন

তবে এবার সামনে সুবর্ণ সুযোগ। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী মাসেই তিন তিনবার রাজ্যে আসার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। আবার সত্যিই যদি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দুর অধিকারীর ভাই দিব্যেন্দু অধিকারী গেরুয়া শিবিরে যান তাহলে সেটাও খুব একটা আশ্চর্যের ঘটনা হবে না বলেই মত রাজনৈতিক মহলের অধিকাংশের। এখন সামনে কী হয় সেটাই দেখার।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর