দুর্নীতির তদন্ত দ্রুত শেষ করুন! বিশেষ বৈঠকে মোদীর কাছে আর কী কী আর্জি জানালেন শুভেন্দু-সুকান্ত?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বঙ্গ সফরের দ্বিতীয় দিনে কৃষ্ণনগরে সভা করলেন প্রধানমন্ত্রী। আরামবাগের পর এই সভা থেকেও রাজ্য রাজনীতির একাধিক ইস্যু নিয়ে তৃণমূলকে আক্রমণ করেন তিনি। দুর্নীতি নিয়ে সুর চড়ানোর পাশাপাশি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলার ৪২টি আসনেই বিজেপিকে জেতানোর ডাক দেন মোদী (Narendra Modi)। সভা শেষ হওয়ার পর বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে ডেকে নেন একান্ত বৈঠকের জন্য।

ভোট পরবর্তী হিংসা এবং পঞ্চায়েত নির্বাচনে হিংসার চিত্র দেখেছে বঙ্গবাসী। সেই আতঙ্ক রয়েছে সাধারণ মানুষের মনে। লোকসভা ভোট যাতে সুষ্টুভাবে হয় সেই জন্য দরকার ভয়মুক্ত পরিবেশ। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে একথাই জানিয়েছেন শুভেন্দু (Suvendu Adhikari) এবং সুকান্ত (Sukanta Majumdar)। প্রায় ১৭ মিনিট ধরে রাজ্য বিজেপির (BJP) এই দুই হেভিওয়েট নেতার সঙ্গে বৈঠক করেন মোদী।

   

পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা এবং রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর (PM Modi) কাছে অভিযোগ করেন শুভেন্দু-সুকান্ত। সূত্রের খবর, রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনের একটি অংশ তৃণমূলের (TMC) হয়ে কাজ করছেন। প্রশাসনিক নিরপেক্ষতা তলানিতে ঠেকেছে। প্রধানমন্ত্রীকে এই প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন তাঁরা।

এখানেই শেষ নয়! বাংলায় (West Bengal) যে সকল দুর্নীতির তদন্ত এখনও চলছে, সেগুলি যাতে দ্রুত শেষ করা হয় সেই আর্জিও জানিয়েছেন শুভেন্দু-সুকান্ত। পঞ্চায়েত নির্বাচনে হিংসা এবং ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের সাক্ষী থেকেছে বাংলার মানুষ। লোকসভা ভোটের (Lok Sabha Election 2024) আগে সেই ভয়ের পরিবেশ দূর করা জরুরি বলে প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন রাজ্য বিজেপির দুই নেতা।

narendra modi sukanta majumdar suvendu adhikari

আরও পড়ুনঃ আবেদন বাতিল, পরীক্ষা দিতে পারবে ১২ হাজার চাকরিপ্রার্থী? সিদ্ধান্ত নিতে শনিবার বসলো আদালত

শুভেন্দু-সুকান্তর সঙ্গে বৈঠকের পর নিজের এক্স হ্যান্ডেলে একটি ছবি পোস্ট করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে দেখা যাচ্ছে, তাঁর সামনে বসে আছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি এবং বিরোধী দলনেতা। ছবিটি পোস্ট করে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, একাধিক বিষয়ে শুভেন্দু-সুকান্তর সঙ্গে কথা হয়েছে তাঁর। বাংলার ভবিষ্যৎ মজবুত করার উদ্দেশে একজোট করে কাজের বার্তাও দিয়েছেন মোদী। অন্যদিকে বৈঠকের পর সুকান্ত মজুমদার জানান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নানান বিষয়ে তাঁদের কথা হয়েছে। তবে তা সংবাদমাধ্যমের সামনে খোলসা করা যাবে না। তবে ভবিষ্যতে মানুষ অনেক কিছু দেখতে পাবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর