fbpx
টাইমলাইনভাইরালভারত

লকডাউনেও পুলিসি জুলুম, ভিডিও ভাইরাল হতেই বরখাস্ত পুলিসকর্মী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: চিন, ইতালি, ইরান পেরিয়ে ভারতেও হানা দিয়েছে প্রাণঘাতী করোনা। আর তার ভয়াবহতা থেকে বাঁচতে আঁটঘাট বেঁধে তৈরি কেন্দ্রীয় ও রাজ‍্য সরকারগুলি। ইতিমধ‍্যেই লকডাউন ঘোষনা হয়ে গিয়েছে বেশ কিছু রাজ‍্যে। বাইরে বেরোনোয় কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী মোদী ঘোষনা করেছেন আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত পুরো দেশেই মানা হবে লকডাউন। এই অবস্থায় সকলেই রয়েছেন গৃহবন্দি।
অন‍্যান‍্য জরুরি পরিষেবার মতো পুলিসরাও এই পরিস্থিতিতেও রয়েছেন ডিউটিতে। তারাও বারংবার বারন করছেন ঘর থেকে না বেরোতে। বহু জায়গায় লাঠিচার্জেরও ঘটনা ঘটেছে। আবার অনেক জায়গায় ভিন্ন ছবিও দেখা গিয়েছে। পুনের এক পুলিসকর্মীর গলায় শোনা গিয়েছে ‘সরফরোশ’ ছবির গান। চেন্নাইয়ের ট্রাফিক পুলিসের এক সাব ইনস্পেক্টর হাতজোড় করে মানুষকে ঘর থেকে বেরোতে বারন করছেন, চোখে পড়েছে এমন চিত্রও।


তবে কয়েনের উলটো দিকও রয়েছে। লকডাউনের পরিস্থিতির মধ‍্যেই অনেক জায়গায় নির্দোষ মানুষের ওপর পুলিসি হামলার ঘটনা ঘটেছে। দিল্লি পুলিসের একটি ভিডিও এগুলির মধ‍্যে একটি। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে ইউনিফর্ম না পরা অবস্থাতেই রীতিমতো তান্ডব চালাচ্ছেন রাজবীর নামে দিল্লি পুলিসের ওই কনস্টেবল। দুই সবজি বিক্রেতার ঠেলাগাড়ি উলটে দেন তিনি। এক প্রত‍্যক্ষদর্শী পুরো ঘটনাটাই ক‍্যামেরাবন্দি করে রাখেন। বৃহস্পতিবার ঘটে যাওয়া দিল্লির রঞ্জিত নগর অঞ্চলের এই ঘটনা প্রকাশ‍্যে আসতেই ওই পুলিস কনস্টেবলকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করে দিল্লি প্রশাসন।

 

অপরদিকে উত্তরপ্রদেশের বাদাউনেও একই রকমের একটি ঘটনা প্রকাশ‍্যে আসে। লকডাউন হয়ে যাওয়ায় পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন কয়েকজন শ্রমজীবী যুবক। রাস্তায় তাদের আটকে কোনও কথা না শুনেই ভারী ব‍্যাগ সমেত রাস্তায় ওঠবোস করায় এক পুলিসকর্মী। এই প্রসঙ্গে বাদাউন থানার ওসি এ ত্রিপাঠি জানান, ওই পুলিসকর্মী একজন শিক্ষানবীশ। তার সঙ্গে সিনিয়র অফিসাররা ছিলেন কিন্তু তাঁরা অন‍্যদিকে ব‍্যস্ত ছিলেন। তবে এক্ষত্রে যথাযথ ব‍্যবস্থা নেওয়া হবে।

Back to top button
Close
Close