টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

চাকরি দেওয়ার নামে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ! গাছে বেঁধে পেটানো হল তৃণমূল নেত্রী ও তার পরিবারকে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ চাকরি দুর্নীতি মামলায় বর্তমানে একের পর এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠে আসায় উত্তপ্ত গোটা বাংলার পরিস্থিতি। এসএসসি (SSC) থেকে শুরু করে প্রাইমারি টেট (Primary Tet) দুর্নীতি মামলায় আন্দোলনে নেমেছে চাকরিপ্রার্থীরা। সম্প্রতি প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) গ্রেফতারি এই বিতর্ক আরো উস্কে দিয়েছে। তবে শুধুমাত্র শহরই নয়, বর্তমানে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে এ সকল অভিযোগ ক্রমশ সামনে এসে চলেছে আর এবার লক্ষ লক্ষ টাকার বিনিময়ে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল পূর্ব মেদিনীপুর (Purba Medinipur) জেলার বুক থেকে।

ঘটনার কেন্দ্রস্থল পূর্ব মেদিনীপুরে ভগবানপুর থানা সংলগ্ন কোটবাড় গ্রাম। এলাকার এক তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকার আত্মসাৎ-এর অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে গোটা এলাকায়। এমনকি চাকরি না দেওয়ায় ওই তৃণমূল নেতার বাড়িতে চড়াও হওয়ার পাশাপাশি বাড়ি ভাঙচুরের মত ঘটনা সামনে এসেছে। উল্লেখ্য, শিবশঙ্কর নায়েক নামে ওই তৃণমূল নেতা আবার এলাকায় দলীয় পঞ্চায়েত সদস্যার স্বামীও বটে।

অভিযোগ সামনে আসার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত। এদিন তৃণমূল নেতা না মেলায় তার পরিবারের সদস্য এবং স্ত্রীকেই মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। এমনকি পরিবারের কয়েকজনকে গাছে বেঁধেও পেটানো হয়। এলাকাবাসীদের অভিযোগ, শিক্ষকতার চাকরি ছাড়া অন্যান্য একাধিক সরকারি ক্ষেত্রে চাকরি করিয়ে দেওয়ার নাম করে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে শিবশঙ্কর নায়েক। গত পাঁচ বছর ধরে এই কাজ চলছিল বলে জানা গিয়েছে।

Bhagwanpur

প্রসঙ্গত, এর আগেও পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় এহেন অভিযোগ ওঠে। কয়েকদিন পূর্বেই ভাঙরে এক স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ৮ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ-এর অভিযোগ সামনে আছে। এছাড়াও হাওড়ার ডোমজুড়ে চাকরি দুর্নীতি মামলায় এক ব্যক্তিকে পাকড়াও করে মারধর করে দুই মহিলা। পরবর্তীতে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাকে। ফলে বাংলায় চাকরি দেওয়াকে কেন্দ্র করে একের পর এক দুর্নীতির ঘটনা কিভাবে সামাল দেয় রাজ্য সরকার, বর্তমানে সেটাই বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Related Articles

Back to top button