টাইমলাইনবিনোদনভিডিও

নিজের দু বছরের ছেলের হাতে মোবাইল, ‘হাবজি গাবজি’ বানিয়ে জ্ঞান দিচ্ছেন! ফের ট্রোলড রাজ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সামনে রাখা মোবাইল ফোন। উপুড় হয়ে শুয়ে একটার পর একটা ভিডিও চালিয়ে গানের তালে মাথা দোলাচ্ছে ইউভান (Yuvaan)। ছেলের মিষ্টি ভিডিও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty)। কিন্তু তা নিয়ে যে এত ট্রোল হতে হবে তা ভাবতেও পারেননি তিনি।

টলিপাড়ার জনপ্রিয়তম স্টারকিড ইউভান, এতে সন্দেহের অবকাশ নেই। রাজ শুভশ্রী দুজনেই ছেলের কাণ্ডকারখানার ছবি, ভিডিও শেয়ার করেন সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। আর তা দেখে তাজ্জব বনে যান নেটনাগরিকরা। আগামী মাসেই দু বছরে পা দেবে ইউভান। কিন্তু এর মধ‍্যেই প্রায় সবকিছুই শিখে গিয়েছে সে।

ছেলেকে কোনো কিছু থেকে দূরে সরিয়ে রাখেন না রাজ শুভশ্রী। বাইকের উপরে বসানো থেকে চারচাকার স্টিয়ারিং হাতে তুলে দেওয়া, শরীরচর্চা থেকে শুরু করে ফুটবল খেলা সব শিখে নিয়েছে ইউভান। এমনকি এইটুকু বয়সেই মোবাইলেও পোক্ত হয়ে উঠেছে সে।

আধুনিক বাচ্চারা অনেকেই মোবাইল ফোনে পটু। বাবা মায়ের দেখাদেখি খুদে যন্ত্রকে চালাতে শিখে গিয়েছে তারাও। কারোর সাহায‍্য ছাড়াই ইউটিউব বা ইনস্টাগ্রাম খুলে পছন্দের ভিডিও, গান চালিয়ে দিতে পারে পুঁচকেরা। বড়রা দেখে অবাক হলেও আসলে ছোটদের হাতে মোবাইল তুলে দেওয়া কতটা উচিত?

এ বিষয়ে কয়েক মাস আগেই একটি ছবি বানিয়েছিলেন রাজ, ‘হাবজি গাবজি’। মোবাইল ফোন আর নানান অনলাইন গেমসের আসক্তি ছোটদের মনে কী প্রভাব ফেলতে পারে আর তাতে পরিবারে কত বড় বিপদ নেমে আসতে পারে সেটাই ছবির মাধ‍্যমে দেখিয়েছিলেন রাজ।

ছবির প্রচারে ছোটদের হাতে মোবাইল ফোন তুলে দেওয়ার বিরুদ্ধে অনেক কিছু বলেছিলেন রাজ শুভশ্রী। অথচ এখন তাঁদের দু বছরের ছেলেই মোবাইল ঘাটছে। আর ভিডিও দেখে যথেষ্ট স্পষ্ট যে ইউভান মোবাইলে বেশ পটু, যা মোবাইল হাতে না পেলে এত ছোট এক বাচ্চা কোনো ভাবেই শিখতে পারে না।

বিষয়টা লক্ষ‍্য করেই কটাক্ষ করেছেন নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন, হাবজি গাবজি তে এত কিছু দেখিয়েছেন। আর এখন নিজের ছেলেকেই মোবাইল দিয়ে রেখেছেন! আরেকজনও কটাক্ষ শানিয়েছেন, বাচ্চাকে ফোন না দেওয়ার ছবি বানিয়ে নিজের ছেলেকে ফোন দেখতে দিয়েছেন!

Related Articles