fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারত

আজই ‘রাম’ লেখা ইট যাচ্ছে অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরীর জন্য

বাংলা হান্ট ডেস্ক- দীর্ঘ ৫০০বছরের অতিক্রান্ত করার পর আজ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির নেতৃত্বে অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। যে তিনটি মামলা করা হয়েছিল তা পুনর্বিবেচনা করে দীর্ঘ চল্লিশ দিন শুনানির পর আজ সকাল ১০ টা থেকে ১০ঃ৩০ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এরা পাঁচ বিচারপতি প্রায় হাজার পৃষ্ঠার বেশি পড়ে শোনানো হয়।

সেখানে মূলত ঘোষণা করা হয় সেখানেই রামের জন্ম হয়েছিল এবং সেখানেই রাম মন্দির তৈরি হবে এবং কেন্দ্রীয় সরকার ৩ মাসের মধ্যে তার নকশা চূড়ান্ত করবে এবং কাজ শুরু করবে।

 

এদিকে মুসলিমদের যে কমিটি ছিল সেই কমিটি অযোধ্যার মধ্যেই জায়গা দিতে হবে, সেখানে তৈরি হবে বাবরি মসজিদ। রাম জন্মভূমি বাবরি মসজিদের যে তোলপাড় হচ্ছিল গোটা ভারতবর্ষে জুঁড়ে অবশেষে সেই রায় ঘোষণা হল। ইতিমধ্যে ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন এবং বলেছেন প্রত্যেক ধর্মের মানুষ যাতে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখেন এবং নরেন্দ্র মোদী ছাড়াও সমাজের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা একে সাধুবাদ জানিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বলেছেন কোথাও যেন অশান্তির না হয়।

ইতিমধ্যে উত্তরপ্রদেশে তিনদিনের ইন্টারনেট এবং টেলিভিশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। স্কুল-কলেজ কার্যত বন্ধ। রামের জন্মভূমি অযোধ্যাতে হাজির হচ্ছেন বিভিন্ন সংগঠনের সাধুরা। তাদের দাবি আজ থেকে শুরু হবে রাম মন্দির।

 

বেশ কিছুদিন আগে দেখা গেছিল জন্মভূমিতে অযোধ্যাতে ‘রাম’ নাম লেখা ‘জয় শ্রীরাম’ লেখা ইট নিয়ে আসছে। হিন্দু সংগঠন এবার তারা রায় বেড়ানোর পর আনন্দে মেতেছেন এবং তারা ‘জয় শ্রী রাম’ জয় রাম লেখা ইট নিয়ে যাচ্ছে। যেখানে তৈরি হবে মন্দির। এখন দেখার বিষয় কবে থেকে শুরু হয় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ কিন্তু সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে ইতিমধ্যে একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে। সেখানে দূরত্ব তার সাথে কিভাবে রাম মন্দির নির্মাণ করা যায় সেই বিষয়ে নজর দিতে বলা হয়েছে। এদিকে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ টা এই রায়কে তিরস্কার করেছেন। হাওড়া বাসিন্দা বিজেপি নেত্রী ইসরাত জাহান রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন। এছাড়া একাধিক মুসলিম সংগঠন এই রায়কে স্বাগত জানায়। এখন দেখার বিষয় শেষ পর্যন্ত এই রায়ের পর মন্দির নির্মাণ কবে থেকে হয়, সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে তিন মাসের নকশা চূড়ান্ত হলে দু’বছরের মধ্যে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শেষ হবে।

এই রায়কে আরএসএসের প্রধান মোহন ভাগবত স্বাগত জানিয়েছেন এবং বলেছেন এই ঐতিহাসিক রায় হিন্দুদের নৈতিক জয় হয়েছে।

সেখানে রামের জন্মভূমি ছিল তা আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া বলেছিলেন। এদিকে ওদিকে রামদেব বাবার ও এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Close
Close