টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

জল্পেশের পর এবার রামপুরহাট, সরকারি বাসের ধাক্কায় মৃত ৯! আর্থিক সাহায্য ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মাঝে মাত্র কয়েকটা দিন আর তার ব্যবধানেই পথ দুর্ঘটনায় ফের একবার প্রাণ হারালো সাধারণ মানুষ। সম্প্রতি, জল্পেশ পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন অসংখ্য পূণ্যার্থী। এদিনও একইভাবে দ্রুত গতিতে ছুটে আসা বাসের ধাক্কায় প্রাণ হারালো ৯ ব্যক্তি। ঘটনাটি সামনে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। পরবর্তীতে শোক প্রকাশ করার পাশাপাশি নিহত এবং জখম পরিবার পিছু সকলকে আর্থিক সাহায্য করার কথা ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

এদিন বীরভূম জেলার মল্লারপুর থেকে রামপুরহাটের উদ্দেশ্যে রওনা দেন ওই ৯ ব্যক্তি। তারা প্রত্যেকেই রামপুরহাটের পারকান্দি গ্রামের বাসিন্দা এবং চাষের কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলেন বলেই জানা গিয়েছে। তবে মাঝপথে তেলডা গ্রামের কাছে ঘটে ভয়াবহ দুর্ঘটনা। সূত্রের খবর, দ্রুত গতিতে ছুটে আসা সরকারি বাস ধাক্কা মেরে বসে একটি অটোকে এবং এর ফলে তৎক্ষণাৎ অটোটি থেকে রাস্তায় পড়ে যায় সকল যাত্রী। ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৯ জনের।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মল্লারপুর থেকে সরকারি বাসটি দ্রুতগতিতে ছুটে আসতে থাকে এবং আচমকা বাসের সামনে এসে পড়ে অটোটি। পরবর্তীতে বাঁচার একাধিক চেষ্টা করলেও সক্ষম হয়নি অটোচালক এবং বাসের ধাক্কায় বাহনটিতে থাকা সকলেই রাস্তায় পড়ে যান। এক্ষেত্রে অটোয় উপস্থিত যাত্রীদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ মেলেনি এবং সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তারা। এই ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পরই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়।

পরবর্তীতে এ সম্পর্কে শুভেন্দু অধিকারী একটি টুইট করে আর্থিক সহায়তার দাবি করেন এবং কিছু সময় পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দ্বারা মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা এবং জখম পরিবার পিছু ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তার কথা ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি কোচবিহারের শীতলকুচি থেকে জল্পেশ মন্দিরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন কয়েকজন পূণ্যার্থী। পিকআপ ভ্যানে করে যাওয়ার সময় বাজানো হয় ডিজে। তবে পরবর্তী সময় যে এক ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনা অপেক্ষা করে রয়েছে, তা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি তারা।পরবর্তীতে চ্যাংরাবান্ধারের কাছে আচমকা কয়েকজনের চিৎকার শুনতে পেয়ে গাড়ি থামান চালক। সেই মুহূর্তে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে গাড়ির ভেতরই অনেকে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাদের মধ্যে ১০ জনকে মৃত ঘোষণা করা হয়। এই ঘটনাটি সামনে আসতেই রাজ্য সরকারের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকেও ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করা হয়। আর এবার রামপুরহাট, গাড়ি দুর্ঘটনায় ফের একবার প্রাণ কাড়লো সাধারণের।

Related Articles