নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বড় জামিন! সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা CBI-র, কোন নেতা পেলেন মুক্তি?

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি (Recruitment Scam) মামলায় টানা ৬৫ ঘণ্টা জেরা ও বাড়ি অফিসে তল্লাশির পর গ্রেফতার হয়েছিলেন মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) বড়ঞার তৃণমূল বিধায়ক (TMC MLA) জীবনকৃষ্ণ সাহা। গত বছর এপ্রিল মাসে গ্রেফতার হয়েছিলেন তিনি। এক বছর পর জীবনকৃষ্ণ সাহাকে (Jiban Krishna Saha) জামিন দিল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)।

নবম-দশম নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই এর হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন জীবনকৃষ্ণ। পরে সেই মামলায় জামিন চেয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন তৃণমূলের এই নেতা। মঙ্গলবার সেই মামলায় জীবনকৃষ্ণের জামিন মঞ্জুর করল সুপ্রিম কোর্ট। প্রভাবশালী তত্ত্বে সিবিআই জীবনের জামিনের বিরোধীতা করলেও সুপ্রিম কোর্ট তাতে সাড়া দেয় নি।

এদিন শীর্ষ আদালতে তৃণমূল বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ সাহার হয়ে সওয়াল করেন আইনজীবী মুকুল রোহাতগি ওঅনির্বাণ গুহ ঠাকুরতা। এরপরই সুপ্রিম কোর্টে মঞ্জুর হয় তার আবেদন। সিবিআই-এর ওই মামলায় জামিন পেলেন জীবনকৃষ্ণ। গ্রেফতার হওয়ার পর প্রথমে জামিনের আবেদন নিয়ে তিনি কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন। সেখানে জীবনের জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে যায়। তার শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বিধায়ক।

jiban krishna cbi

আরও পড়ুন: ‘কথা দিচ্ছি নিজে করব’! ‘খেয়ে দেখুন না স্বাদ কেমন’, ‘মোদীবাবু’কে কী খাওয়ার আমন্ত্রণ জানালেন মমতা?

সুপ্রিম কোর্টে জীবনের জামিন-আর্জির শুনানি একাধিকবার পিছিয়ে যায়। তবে এদিন হল সুরাহা। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এএস বোপান্না এবং বিচারপতি সঞ্জয় কুমারের ডিভিশন বেঞ্চে মঙ্গলবার জীবনকৃষ্ণের জামিন মঞ্জুর করে। গ্রেফতারির ১৩ মাস পর জামিনে মুক্ত বড়ঞার তৃণমূল বিধায়ক। এদিন সিবিআই-র আর্জি খারিজ করে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, বড়ঞাতেও ঢুকতে পারবেন বিধায়ক।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর