টাইমলাইনভারত

বৃহস্পতিবার বিশেষ এই উপায় স্মরণ করুন মা লক্ষ্মীকে, হবে না অর্থাভাব

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ সংসারে লক্ষ্মী (Lakshmi) লাভের আশায় সকলেই লক্ষ্মী দেবীর পুজো করে থাকেন। সংসারে ধন প্রাপ্তি এবং সুখ শান্তি বৃদ্ধি সব ক্ষেত্রেই মা লক্ষ্মীর আশির্বাদ প্রধান উপার্য বিষয়। তবে আপনাদের মধ্যে অনেকেই হয় জানেন যে, লক্ষ্মী দেবী বড়ই চঞ্চলা। তিনি এক জায়গায় বেশি দিন স্থায়ী থাকেন না।

লক্ষ্মী দেবীকে সকলেই চায় নিজের ঘরে প্রতিষ্ঠা করতে। সকলেই দিন রাত তাঁর আরাধনায় মত্ত থাকেন। তবে একথা হয়ত অনেকেরই অজানা এমন কিছু কাজ আছে, যেগুলো সংসারে ঘটতে দেখলে লক্ষ্মী দেবী বড়ই রুষ্ট হন। তাই সেই সকল কাজ না করাই শ্রেয়।

Follow this special rule during Lakshmi Pujo on Thursday

অতিথি নারায়ণ। বাড়িতে অতিথি এলে কখনই তাঁদের ফেরাতে নেই। ঘরে যা আছে, তাই দিয়েই সেবা করুন গৃহে আগত অতিথির। মা লক্ষ্মী সন্তুষ্ট হবেন।

মাথা ঠাণ্ডা রেখে সবসময় কাজ করতে হবে। কোন কাজের ক্ষেত্রে বাঁধা এলে, চট করে মাথা গরম না করে, ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতির বিচার করে সমাধান করতে হবে।

Satisfy mother Lakshmi in this special way

পরিবার এবং স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যতই অশান্তি হোক না কেন, তা কখনই পাঁচকান করা উচিত নয়। এতে সমস্যা সমাধানের বদলে উল্টে বেড়ে যায়।

মানুষের জীবনে ওঠা পড়া লেগেই থাকে। তাই কখনও পরিবারের আর্থিক অবস্থা শোচনীয় হলে, সেই কথা নিজের মধ্যেই আবদ্ধ রাখুন। তা বাইরের পাঁচজনকে কখনই বলতে নেই।

বাড়িতে যদি সর্বদাই কলহের পরিবেশ বিরাজ করে, তাহলে লক্ষ্মী দেবী সেই বাড়িতে বাস করতে পারেন না। তাঁর বদলে গৃহে এসে বাসা বাঁধে অলক্ষ্মী। তাই ঝগড়া বিবাদ না করাই মঙ্গল।

পরিবারের সকল সদস্যের বুদ্ধির ধরণ সমান নাও হতে পারে। তাই কোন একজন কম বুদ্ধিবাহী হলে, কখনই তাঁকে অসম্মান বা হেও করা উচিত নয়। পরিবারের সকল সদস্যের ন্যায় তাঁর কথাও সমান গুরুত্ব দিয়ে শোনা উচিত।

Related Articles

Back to top button